পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩১৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


○〉や চয়নিক উজাড় ক’রে দিয়ে থলি করলে আনাগোনা । বোঝা মাথায় নিয়ে কোথায় গেলেম অন্যমন । সন্ধ্যাবেলায় জ্যোংস্কা নামে মুকুল-ভরা গাছে । সুন্দরী সে বেরিয়ে এল বকুলতলার কাছে । বললে কাছে এসে, “তোমায় কিনব আমি হেসে ।” হাসিখানি চোখের জলে, মিলিয়ে এল শেষে ; ধীরে ধীরে ফিরে গেল বন-ছায়ার দেশে ॥ " সাগরতীরে রোদ পড়েছে, ঢেউ দিয়েছে জলে, ঝিমুক নিয়ে খেলে শিশু বালুতটের তলে । যেন আমায় চিনে', বললে “আমনি নেব কিনে ৷” বোঝা আমার পালাস হোলো তখনি সেই দিনে খেলার সুখে বিনামূল্যে নিল আমায জিনে ॥ ( আষাঢ়, ১৩১৯ ) — গীতিমাল্য যাত্রাশেষ মুদিত আলোর কমল-কলিকাটিরে রেখেছে সন্ধ্য আঁধার পর্ণপুটে উতরিবে যবে নব-প্রভাতের তীরে তরুণ কমল আপনি উঠিবে ফুটে । উদয়াচলের সে-তীর্থপথে আমি চলেছি একেলা সন্ধ্যার অনুগামী, দিনান্ত মোর দিগন্তে পড়ে লুটে ।