পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চয়নিক - بوده . ছায়া হয়ে যাহা মিলায় দিগন্তরে, জীবনের ধন কিছুই যাবে না ফেল, ধুলায় তাদের যত হোক অবহেলা, পূর্ণের পদ-পরশ তাদের পরে । ( ২ কাতিক, ১৩২১ ) — গীতালি নবীন ওরে নবীন, ওরে আমার কাচা, ওরে সবুজ, ওরে অবুঝ, আধ-মরাদের ঘা মেরে তুই বাচা । রক্ত-আলোর মদে মাতাল ভোরে আজকে ধে যা বলে বলুক তোরে, সকল তর্ক হেলায় তুচ্ছ ক’রে পুচ্ছটি তোর উচ্চে তুলে নাচ । আয় দুরস্ত, আয় রে আমার র্কাচ ॥ খfচাখান তুলছে মৃদু হাওয়ায় । আর তো কিছুই নড়ে না রে ওদের ঘরে, ওদের ঘরের দাওয়ায় । ঐ-যে প্রবীণ, ঐ যে পরম পাকা, চক্ষু কৰ্ণ দুটি ডানায় ঢাকা, ঝিমায় যেন চিত্র পটে আঁক। অন্ধকারে বন্ধ-করা খাচায় । আয় জীবন্ত, আয় রে আমার র্কাচা ॥