পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩৬৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চয়নিক ৩৭১ দে রে চিত্তে মোর সকল-ভোলার ঐ ঘোর, খেলেনা-ভাঙার খেলা দে আমারে বলি’ ৷ আপন স্বষ্টির বন্ধ আপনি ছিড়িয়া যদি চলি, তবে তোর মত্ত নতনের চালে আমার সকল গান ছন্দে ছন্দে মিলে যাবে তালে ৷ ( * ১৩২৫ ) —শিশু ভোলানাথ । মনে পড়া মাকে আমার পড়ে না মনে । শুধু কখন পেলতে গিয়ে হঠাৎ অকারণে একটা কী স্বর গুনগুনিয়ে কানে আমার বাজে, মায়ের কথ। মিলায় যেন আমার খেলার মাঝে । মা বুঝি গান গাইত, আমার দোলন ঠেলে ঠেলে ; ম| গিয়েছে, যেতে যেতে গানটি গেছে ফেলে ॥ মাকে আমার পড়ে না মনে । শুধু যখন আশ্বিনেতে ভোরে শিউলি বনে শিশির-ভেজা হাওয়া বেয়ে ফুলের গন্ধ আসে, তখন কেন মায়ের কথা আমার মনে ভাসে । কবে বুঝি আনত মা সেই ফুলের সাজি বয়ে, পূজোর গন্ধ আসে-যে তাই মায়ের গন্ধ হয়ে ৷