পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩৯৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চয়নিক "לסג9\ পাতার আড়াল হতে বিকালের আলোটুকু এসে আরো কিছুখন ধ'রে, ঝলুক তোমার কালে কেশে ॥ হাসিয়ো মধুর উচ্চহাসে অকারণ নির্মম উল্লাসে, বন-সরসীর তীরে ভীরু কাঠ-বিড়ালীরে সহসা চকিত কোরে ত্রাসে । ভুলে-যা ৪য়ু কথাগুলি কানে কানে করায়ে স্মরণ দিব না মন্থর করি ওই তব চঞ্চল চরণ ॥ তার পরে যেয়ে তুমি চলে ঝরা-পাত দ্রুতপদে দ'লে নীড়ে-ফের পাখি যবে অক্ষুট কাকলি রবে দিনান্তেরে ক্ষুব্ধ করি তোলে। বেল্লুবনচ্ছায়া-ঘন সন্ধ্যায় তোমার ছবি দূরে মিলাইবে গোধূলির বাশরির সর্বশেষ স্বরে। রাত্রি যবে হবে অন্ধকার বাতায়নে বসিয়ো তোমার । সব ছেড়ে যাব, প্রিয়ে, স্বমুখের পথ দিয়ে, ফিরে দেখা হবে না তো আর । ফেলে দিয়ে ভোরে-গাথা মান মল্লিকার মালাখানি। সেই হবে স্পর্শ তব, সেই হবে বিদায়ের বাণী । ( ২২শে নভেম্বর, ১৯২৪ ) —পুরী।