পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩৯৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চয়নিক। প্রভাতী চপল ভ্রমর, হে কালো কাজল আখি, খনে খনে এসে চলে যাও থাকি' থাকি । হৃদয় কমল টুটিয়। সকল বন্ধ বাতাসে বাতাসে মেলি’ দেয় তার গন্ধ, তোমারে পাঠায় ডাকি', হে কালে কাজল আঁখি ॥ যেথায় তাহার গোপন সোনার রেণু সেথা বাজে তার বেণু ; বলে এসো, এসে, লও খুজে লও মোরে, মধু-সঞ্চয় দিয়ে না ব্যর্থ ক’রে, এসে। এ-বক্ষ মাঝে, কবে হবে দিন আঁধারে বিলীন সাৰে ॥ দেখে চেয়ে কোন উতলা পবন বেগে সুখের আঘাত লেগে মোর সরোবরে জলতল ছল-ছলি' এ-পারে ও-পারে করে কী যে বলাবলি, তরঙ্গ উঠে জেগে । গিয়েছে আঁধার গোপনে-কাদার রাতি, নিখিল ভুবন হেরো কী আশায় মাতি’ আছে অঞ্জলি পাতি ॥ \లిసెన్స్లా