পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ध्ग्रनिको দুটি হাতে হাত দিয়ে ক্ষুধাত নয়নে চেয়ে আছি দুটি অণথি-মাঝে । খুজিতেছি কোথ। তুমি, কোথা তুমি । ষে-অমৃত লুকানো তোমায় সে কোথায় । অন্ধকার সন্ধ্যার আকাশে বিজন তারার মাঝে কঁাপিছে যেমন স্বগের আলোকময় রহস্ত অসীম, ওই নয়নের নিবিড় তিমির তলে, কঁাপিছে তেমনি আত্মার রহস্য-শিখা ৷ তাই চেয়ে আছি । প্রাণ মন সব লয়ে তাই ডুবিতেছি অতল আকাজক্ষা-পারাবারে । তোমার অাখির মাঝে, হাসির আড়ালে, বচনের স্ব ধাম্রোতে, তোমার বদনব্যাপী করুণ শাস্তির তলে, তোমারে কোথায় পাব তাই এ ক্ৰন্দন । বৃথা এ ক্ৰন্দন । হায় রে দুরাণ । এ রহস্য, এ আনন্দ ভোর তরে নয় যাহা পাস তাই ভালো,