পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৪১৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চয়নিক 83) পরিচয় তখন বর্ষণহীন অপরাহ্ল মেঘে শঙ্কা ছিল জেগে, ক্ষণে ক্ষণে তীক্ষ্ণ ভৎসনায় বায়ু হেঁকে যায়, শূন্যে যেন মেঘাচ্ছন্ন রৌদ্ররাগে পিঙ্গল জটায় নারদ হানিছে ক্রোধ রক্তচক্ষু কটাক্ষচ্ছটায় । সে-তুর্যোগে এনেছিছ তোমার বৈকালী কদম্বের ডালি । বাদলের বিষগ্নছায়াতে গীতহারা প্রাতে নৈরাশুজিয়ী সে ফুল রেখেছিল কাজল প্রহরে রেীত্রের স্বপনছবি রোমাঞ্চিত কেশরে কের্ণরে ॥ মন্থর মেঘেরে যবে দিগস্তে ধাওয়ায় পুবন হাওয়ায়, কাদে বন শ্রাবণের রাতে প্লাবনের ঘাতে, * তখনো নিভাক নীপ গন্ধ দিল পারি কুলীয়ে, বৃন্ত ছিল ক্লাস্তিহীন, তখনে সে পড়েনি ধুলায় । সেই ফুলে দৃঢ় প্রত্যাশার দিছু উপহার ॥ д সজল সন্ধ্যায় তুমি এনেস্থলে, সখী, । একটি কেতী ।