পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৪৬৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চয়নিক। "ל9\8 অকিঞ্চনের রোদনে ধেয়ান টুটে, কৃপণ দয়ায় কচিৎ একটি ফুটে অবগুষ্ঠিত অকাল পুষ্প-কলি ॥ যত মনে ভাবি রাখি তারে সঞ্চিয়া, ছিড়িয়া কাড়িয়া লয় মোরে বঞ্চিয়৷ প্রলয়-প্রবাহে ঝ’রে-পড়া যত পাতা । বিস্ময় লাগে আশাতীত সেই দানে, ক্ষীণ সৌরভে ক্ষণগৌরব আনে । বরণ-মালা হয় না তাহাতে গাথা ॥ ( ১৯৩৪, জানুয়ারী ) — বীথিকা আজ আমার প্রণতি গ্রহণ করে। আজ আমার প্রণতি গ্রহণ করে, পৃথিবী, (l শেষ নমস্কারে অবনত দিনাবসানের বেদীতলে । মহাবীর্যবতী, তুমি বীরভোগ্য, বিপরীত তুমি ললিতে কঠোরে, মিশ্রিত তোমার প্রকৃতি পুরুষে নারীতে ; মানুষের জীবন দোলায়িত করে। তুমি দুঃসহ দ্বন্দ্বে। ডান হাতে পূর্ণ করে স্বধা বাম হাতে চূর্ণ করে পাত্র, তোমার লীলাক্ষেত্র মুখরিত করে। অটবিক্রপে ; দুঃসাধ্য করো বীরের জীবনকে, মহৎজীবনে যার অধিকার ।