পাতা:চয়নিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


छब्रमिका বসন্তে উঠিত ফুটে বনে বেলফুল, কেহ-বা পরিত মালা কেহ-বা ভরিত ভালা করিত দক্ষিণ বায়ু অঞ্চল আকুল । বরষায় ঘনঘটা, বিজুলি খেলায় ; প্রান্তরের প্রান্ত দেশে মেঘে বনে ষেত মিশে, জু ইণ্ডলি বিকশিত বিকাল বেলায় । டி বর্ষ আসে বর্ষ যায়, গৃহকাজ করি ; স্থখদুঃখ ভাগ লয়ে 噸 প্রতিদিন যায় বয়ে, গোপন স্বপন লয়ে কাটে বিভাবরী । লুকানো প্রাণের প্রেম পবিত্র সে কত, আঁধার হৃদয়তলে মানিকের মতো জ্বলে, আলোতে দেখায় কালে কলঙ্কের মতো । ভাঙিয়া দেখিলে ছি ছি নারীর হৃদয়, লাজে ভয়ে থরথর - ভালবাসা সকাতর, তার লুকাবার ঠাই কাড়িলে নিদয় । আজিও তে। সেই আসে বসন্ত শরং । বাক। সেই চাপাশাখে সোনা ফুল ফুটে থাকে, সেই তারা তোলে এসে, সেই ছায়াপথ । সবাই যেমন ছিল, আছে অবিকল, সেই তারা কাদে হাসে, কাজ করে, ভালবাসে, করে পূজা, জালে দীপ, তুলে জানে জল । কেহ উকি মারে নাই তাহাঙ্গের প্রাণে, ভাঙিয়া দেখেনি কেহ হৃদয়-গোপনগেহ, আপন মরম ভারণ আপনি না জানে ।