পাতা:চিঠিপত্র (ঊনবিংশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আপনার আরও অনেকগুলি লেখা বের হয়েছে, সেগুলি এবং ভাণ্ডার বঙ্গদর্শন সাধনা প্রভৃতি পত্রিকাগুলি আপনাকে দেখিয়ে নেওয়া আবশ্যক। কোন দিন গেলে আপনার কোনও অসুবিধা হবে না জানতে পারলে আমি হাজির হব। ইতিমধ্যে একটি প্রশ্নের জবাব জানতে পারলে ভাল হত। মানসীর প্রথম সংস্করণের (২য় সংস্করণেরও) ভূমিকায় লেখা এক ইংরাজি কবিতা অবলম্বন করিয়া রচনা করিয়াছি। মূল কবিতাটি এইখানে উদ্ধৃত করিবার ইচ্ছা ছিল— কিন্তু আমার বন্ধু সম্প্রতি সুদূরপ্রবাসে থাকা প্রযুক্ত তাহা পরিলাম না।” ভূমিকাটি লিখেছিলেন ১৮৯১ সালের জানুয়ারি মাসে। কবিতাটির প্রথম দুই লাইন এই— আমি রাত্রি, তুমি ফুল। যতক্ষণ ছিলে কুঁড়ি জাগিয়া চাহিয়া ছিনু আঁধার আকাশ জুড়ি মূল কবিতাটি কার এবং ওটি কোথায় পাওয়া যেতে পারে জানতে পারলে ভাল হয়।” বিদ্যাসাগর, স্মৃতিমন্দিরের দ্বারোদঘাটন উৎসবে আপনার বক্তব্য লিপিবদ্ধ করার কথা বলেছিলাম, আপনি চিঠিতে স্মরণ করিয়ে দিতে বলেছিলেন, স্মরণ করিয়ে দিচ্ছি। বিদ্যাসাগর গ্রন্থাবলী সম্বন্ধে দুই এক পংক্তি বলা যদি সম্ভব হয় তাহলে রাজেন্দ্র-সঙ্গমে দীনেদেরও কিঞ্চিৎ আত্মপ্রসাদ লাভ ঘটতে পারে। পরিষৎ প্রকাশিত বঙ্কিম গ্রন্থাবলী সম্বন্ধে সামান্য কিছু লিখে দিলে আমরা তা পরিষৎ-পত্রিকায় প্রবন্ধ করে ছাপতে পারি এবং দৈনিক কাগজেও তা প্রকাশ করে প্রচারের কিছু সুবিধা করতে পারি। চৈতন্য লাইব্রেরির কর্তৃপক্ষকে একটা চিঠি দেওয়ার কথা ছিল। আমার প্রণাম জানবেন। ইতি 聽 প্রঃ সজনীকান্ত br ○