পাতা:চিঠিপত্র (ঊনবিংশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৯৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২ রবীন্দ্রনাথের ইচ্ছাক্রমে ১৯৩৮ থেকে সজনীকান্ত রবীন্দ্র-রচনাবলী পরিদর্শন মণ্ডলীর সদস্য নিযুক্ত হয়েছিলেন। বছরব্যাপী সেই সমস্ত রচনাবলী সংক্রান্ত কাজ অব্যাহত ছিল। সেইজন্যে সজনীকান্তের ডাক পড়েছিল বানানের মন্ত্রণাসভায়। ৩ চারুচন্দ্র ভট্টাচার্য : ১৮৮৩-১৯৬১ । পদার্থবিদ্যার অধ্যাপক। ১৯৩২-১৯৫৭ বিশ্বভারতী গ্রন্থনবিভাগের সম্পাদক ছিলেন। রবীন্দ্ররচনাবলী প্রকাশনের অন্যতম প্রধান উদ্যোক্তা ছিলেন। রবীন্দ্রনাথের ঐকান্তিক ইচ্ছা ছিল যে তার ইংরেজি রচনাগুলি রচনাবলীতে যেন স্থান পায়। সেই প্রসঙ্গে তিনি এই চিঠিতে করতে যে ম্যাকমিলানের স্বত্ববহির্ভূত ইংরেজি রচনাগুলিকে রচনাবলী ংস্করণের সময় অন্তর্ভুক্ত করা যায় কি না। (দ্র, সজনীকান্তের পত্র-১৫) কিন্তু এই ক্ষেত্রেও তার ইচ্ছা ফলবতী করতে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ অক্ষম হয়েছিলেন। ৪ ১৯৩৯-এর শেষার্ধে আমলাদেবী ছদ্মনামে, বাঁকুড়া খ্ৰীশ্চান কলেজের বিজ্ঞানের অধ্যাপক ললিতানন্দ গুপ্তের ‘মনোরমা’ নামে গল্পসংকলন প্রকাশিত হয়। সজনীকান্ত, তার বাল্যবন্ধুর গ্রন্থ সম্বন্ধে রবীন্দ্রনাথের কাছে তার অভিমত জানতে চাইলেন। রবীন্দ্রনাথ তার মন্তব্যটি এই পত্রটির সঙ্গে প্রেরণ করেন। উল্লেখ্য কবির অভিমতটি ১৩৪৬ বঙ্গাব্দের মাঘের ‘প্রবাসী’তে প্রকাশিত হয়। (দ্র, ‘আত্মস্মৃতি’, পৃ. ৩৫৫) পত্র-৩ ১ ১ লর্ড ক্রস (Lord Richard Asseton Cross)-do Estot পালামেন্টে Indian Council's Bill-o focal Stowfoot of ECa কলকাতায় ২৬শে এপ্রিল ১৮৯০ (১৪ বৈশাখ, ১২৯৭), তিনটি প্রতিবাদ সভা আহূত হয়। একটি সভা হয় 'দক্ষিণ শহরতলির চেতলা হাটে ও অপর দুটি আয়োজিত হয় উত্তর কলকাতার বিডন স্ট্রীটের দুটি রঙ্গমঞ্চে । বিডন স্ট্রীটের একটি সভার সভাপতি ছিলেন নরেন্দ্রনাথ সেন। SQ Sl