পাতা:চিঠিপত্র (ঊনবিংশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্রনাথকে লিখিত সজনীকান্ত দাসের পত্র G ১৩৩৪ ভাদ্র নবপর্যায়ে মাসিক “শনিবারের চিঠি’র ১ম সংখ্যায় প্রথম রচনা (পৃ. ১-৯), সজনীকান্ত দাসের রচিত “আধুনিক বাঙলা সাহিত্য’ শীর্ষক একটি প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়। এই প্রবন্ধে সজনীকান্ত বাংলা ভাষায় আধুনিকতার যে জোয়ার এসেছিল তারই বিরুদ্ধে লিখেছিলেন। এই প্রবন্ধে সংকলিত হয় তার রবীন্দ্রনাথকে লেখা এই চিঠিটি ও তৎসহ কবির জবাবী চিঠি। (দ্র. রবীন্দ্রনাথের পত্র-২) পরবর্তীকালে গৌতম ভট্টাচার্য র্তার “শ্লীলতা-অশ্লীলতা ও রবীন্দ্রনাথ’ গ্রন্থে সম্পূর্ণ প্রবন্ধটি পুনরায় প্রকাশ করেন। প্রসঙ্গত এই পত্রটি বিশ্বভারতীর অভিলেখাগারের সংগ্রহে না থাকায়, ১৩৩৪ ভাদ্র “শনিবারের চিঠি’ থেকে গৃহীত হয়েছে। ১ (দ্র. ক.) সজনীকান্তকে লিখিত রবীন্দ্রনাথের পত্র সংখ্যক-২, সূত্র (১) এবং (২) । খ. রবীন্দ্রনাথের পত্র সংখ্যা-৪, সূত্ৰ-(১)। ২ ১৩৩৩ বঙ্গাব্দে “শনিবারের চিঠি’ বিচ্ছিন্নভাবে তিনটি বিশেষ সংখ্যায় প্রকাশিত হয়। ১৫ জ্যৈষ্ঠে প্রকাশিত হয় ‘জুবিলি সংখ্যা।’— হিন্দুমুসলমানের দাঙ্গাকে কেন্দ্র করে। আষাঢ়ে প্রকাশিত হয় "বিরহ সংখ্যা’– সমকালীন সাহিত্যকে বিদ্রুপ করে। এবং কার্তিকে ‘ভোট সংখ্যা’ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে। বিরহ সংখ্যায় (পৃ. ৩৩-৩৫) যোগানন্দ দাস 'শ্ৰীআলিঙ্গন হাতী’ ছদ্মনামে লিখেছিলেন “স্পষ্টকবি” শীর্ষক একটি কবিতা। ঐ সংখ্যাতে (পৃ. ১১-৩৩) সজনীকান্তের ‘শ্রীকেবলরাম গাজনদার” ছদ্মনামে একটি নাটিকা—“Orion বা কালপুরুষ” প্রকাশিত হয়। পরবর্তীকালে এই নাটিকাটি তার ‘মধু ও হুল গ্রন্থে সংকলিত হয়। বিরহ সংখ্যাতে (পৃ. ৪৯-৬৪), অশোক চট্টোপাধ্যায় ‘শুভগ্রহ ছদ্মনামে লিখেছিলেন একটি দুই অঙ্কের নাটক “স্বর্গেsensation !” এবং > brs)