পাতা:চিঠিপত্র (ঊনবিংশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


S ক) রবীন্দ্রনাথের পত্র-২১ । খ) ‘রবীন্দ্রনাথ ; জীবন ও সাহিত্য’, পৃ. ১৬৮-৭০। গ) ‘রবিজীবনী ১, পৃ. ১৬৩-৬৫ । পত্র- ১ ৩ পত্রের উপরে বাঁদিকে লেখা আছে, “গুরুদেব উত্তর দিয়েছেন ৩০/১ ১/৩৯”। (দ্র. রবীন্দ্রনাথের পত্র-২৭) ১ কলকাতায়, ২৯/১১/৩৯ তারিখের সকালে, সজনীকান্তের সঙ্গে সুধাকান্ত রায়চৌধুরীর, রবীন্দ্রনাথের মেদিনীপুরে বিদ্যাসাগর স্মৃতিমন্দিরেব দ্বারোদঘাটন অনুষ্ঠানে “যাওয়া নিয়ে” আলোচনা হয়েছিল। এইক্ষেত্রে রবীন্দ্রনাথের মতানুসারেই সকল রকম ব্যবস্থাদির আয়োজন করা হবে বলে, সজনীকান্ত কবিকে ২৯/১১/৩৯ তারিখে লেখা পত্রে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। (দ্র, রবীন্দ্রনাথের পত্র-২৯। ঐ সূত্র-২) ২ ২৩/১১/৩৯ তারিখে : পত্ৰযোগে, রবীন্দ্রনাথ, তৎকালীন রচনাবলী মুদ্রণের অধিনায়ক’ পুলিনবিহারী সেনকে রচনাবলীতে পাঠভেদ সম্পর্কে নির্দেশ দিয়েছিলেন। (দ্র, রবীন্দ্রনাথের ২৭-সংখ্যক পত্রের সূত্র-৩) সজনীকান্ত সেই পরিপ্রেক্ষিতে এই পত্ৰযোগে ‘রাজা ও রাণী এবং “বিসর্জন’-এর পাঠভেদ সমেত মুদ্রণে কিছু প্রযুক্তিগত সুবিধে অসুবিধে সম্পর্কে তার অভিমত রবীন্দ্রনাথকে জানিয়েছিলেন। ৩ দ্র, রবীন্দ্রনাথের লেখা পত্র সংখ্যা-২৭ ৪ দ্র. রবীন্দ্রনাথের লিখিত পত্র সংখ্যক-২৭। সূত্ৰ-৪ ৫ দ্র, বঙ্কিম রচনাবলী সম্পর্কে রবীন্দ্রনাথের অভিমত। ত্র-সংখ্যা-২৮ পত্র- ১ ৪ চিঠির উপরে বাঁদিকে লেখা রয়েছে “গুরুদেব উত্তর দিয়েছেন ৬/১২/৩৯”। (দ্র, রবীন্দ্রনাথের পত্র-২৯) ১ ৩০/১১/৩৯ তারিখে সজনীকান্তকে লেখা রবীন্দ্রনাথের চিঠি। (দ্র, রবীন্দ্রনাথের পত্র-২৭) >为气