পাতা:চিঠিপত্র (ঊনবিংশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২২২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


“প্রতিভাজনেষু, রচনাবলীর কাজের জন্যে আমার একবার তার কাছে যাওয়া দরকার, কতগুলো জিনিষ দেখিয়ে নেবার আছে। বাংলা বানান সম্বন্ধে তিনি কিছু পরামর্শ করতে চান। রবিবার সকালে আটটার গাড়ীতে আমি যেতে চাই,...। আপনার অনুমতি পেলে রওয়ানা হব।. ইতি— শ্ৰীসজনীকান্ত দাস’ ৪ দ্র, রবীন্দ্রনাথের লেখা চিঠির সংখ্যা ৩০, সূত্ৰ-৪ 어西- 인 聯 চিঠির উপরে বাঁদিকে লাল কালিতে "important file' বলে একটি নোট পাওয়া যায়। ১ ডক্টর হরেন্দ্রকুমার মুখোপাধ্যায় (১৮৭৭-১৯৫৬)। কলকাতার সন্ত্রান্ত ক্রীশ্চান পরিবারে জন্ম। ১৯১৮ সালে কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনিই প্রথম ভারতীয়, পিএইচ.ডি. ডিগ্রিতে ভূষিত হয়েছিলেন। ১৯১৪ সাল থেকে কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি সহিত্যে অধ্যাপনা করেন ও ১৯৩৬-৪০ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগীয় প্রধান ছিলেন। ১৯৫১ সালে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল হয়েছিলেন। র্তারই নির্দেশে অমিয় চক্রবর্তীর দরখাস্তটি যেন ৩১ জানুয়ারির মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ে জমা পড়ে কবিকে সেই তথ্য জানিয়েছিলেন সজনীকান্ত। এছাড়াও কিছু প্রয়োজনীয় গোপন তথ্যও ছিল এই চিঠিটিতে। ২ অমিয় চক্রবর্তী। ৩ শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় (১৯০১-১৯৫৩)। ১৯৩৪ সাল থেকে কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ছিলেন। ৪ প্রফুল্ল ঘোষ-(১৮৮৩-১৯৪৮)। পিতা ঈশানচন্দ্র ঘোষ। বিখ্যাত ইংরেজি সাহিত্যের অধ্যাপক। ১৯০৮ থেকে একাদিক্রমে ৩১ বছর প্রেসিডেন্সি কলেজে অধ্যাপনা করেন। ১৯৩৯-এ অবসর গ্রহণ করেন। ఏ ఏసె