পাতা:চিঠিপত্র (চতুর্থ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৯৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


] বোম্বাই الام] ১৫ই মে ১৯২৭ কল্যাণীয়াস্তু মারু, আর ঘণ্টা কয়েকের মধ্যে জাহাজে চড়তে হবে। তাই খুব ব্যস্ত আছি। এগুজের টেলিগ্রামে জানা গেল তোর এখনো কিছুদিন বোলপুরে থাকবি– কলকাতার বাড়ি প্রস্তুত হলে তারপরে যাবি। ওখানে রামানন্দ বাবুদের বাড়ির সামনেই তোদের বাস ঠিক করেচে। যাই হোক আমরা বেশি দিন যুরোপে থাকব না— যত শীঘ্ৰ পারি ফিরে আসল । সুখ দুঃখ আমাদের আয়ন্তের মধ্যে নেই। কিন্তু ভাগে যাই ঘটুক সেইটেকেই নিজের অন্তরের তেজে কল্যাণে পরিণত করবার সাধনা আমাদের নিজের হাতে । তোরা সুখী হবি এই কামন করি কিন্তু এই প্রার্থন পূর্ণ হওয়া সকলের ভাগ্যে কঠিন-- আমি কেবল এই আশীৰ্ববাদ করি দুঃখকে মহত্ত্বের সঙ্গে বহন করবার এবং দুঃখকে আত্মার শক্তিতে অতিক্রম করবার সাধন তোর প্রতি মুহূৰ্ত্তে সফল হতে থাক। এই সংসার নিত্য সত্য নয় এর সঙ্গে অত্যন্ত আসক্ত হওয়| একটা মোহ– সেই আসক্তি থেকে মনকে যদি ছাড়িয়ে নিস্— প্রতিদিনের আপনকে যদি চিরদিনের তাপন থেকে বাইরে রেখে দেখতে পারিস্—সংসারের