পাতা:চিঠিপত্র (ত্রয়োদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১১০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ততই আরো বাড়িয়া উঠিতে থাকিবে। বস্তৃতা করিয়া প্রবন্ধ লিখিয়া ইহার যথার্থ প্রতিকার হয় না— কারণ, যে সকল প্রথা সমাজের লোককে বেদন দিতেছে তাহারা যে বেদনাকর ইহা বুঝাইবার জন্য কোনো বিশেষ চেষ্টার প্রয়োজন হয় না। সমাজের লোক যেদিন উঠিয়া দাড়াইয়া সমাজের মুখে তুড়ি মারিয়া বলিতে পারিবে কেয়ার করি না তোমাকে – তুমি যা খুসি তাই কর— তখনই সমাজ ভালমানুষটির মত তাড়াতাড়ি রফানিম্পত্তি করিবার জন্য প্রস্তুত হইবে । আমি এখন শিলাইদহে ছুটিটা রখীর আতিথ্যে যাপন করিতেছি । এখানে আমার ছোট কন্যা এবং জামাতাও আছে । সকলে মিলিয়া বেশ আনন্দে কাজকৰ্ম্ম এবং চাষবাস লইয়া আছে । ইতি ২৫শে জ্যৈষ্ঠ ১৩১৮ ভবদীয় শ্রীরবীন্দ্রনাথ ঠাকুর or داد ه د Ente ۹۹ હૈં ঐতিনমস্কারপূর্বক নিবেদন— পাঁচ ছয়দিন হইল বিশেষ চেষ্টায় বিদ্যালয়ের জন্য তিন হাজার টাকা শতকরা বারো টাকা মুদে ধার লইয়াছি, কি উপায়ে শোধ করিতে হইবে এখন হইতে তাহা চিন্তার বিষয় । 冷念