পাতা:চিঠিপত্র (ত্রয়োদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নানা উপলক্ষে রবীন্দ্রনাথের সঙ্গে অক্ষয়চন্দ্রের মতবিরোধ ঘটে। বিদ্যালয়ে প্রদেয় বেতনবিষয়ে, অচ্যুতের শিক্ষালাভবিষয়ে নানা দ্বন্ধ উপস্থিত হয় ; শেষ পর্যন্ত অচ্যুত বিদ্যালয়ের পাঠক্রম সম্পূর্ণ করেছিলেন। অক্ষয়চন্দ্রকে লেখা রবীন্দ্রনাথের চিঠিপত্রের মধ্যে ( ‘রবীন্দ্রবীক্ষা সংকলন ১•, পৌষ ১৩৯০ ) এর পরিচয় পাওয়া যায় । “রথীদের কৃষ্ণনগরে পরীক্ষা দেওয়াই স্থির করিবেন।” তৎকালে শাস্তিনিকেতন-বিদ্যালয়ের এনট্রেন্স পরীক্ষার্থীদের ইনস্পেক্টর অব স্কুলস-এর টেস্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে বিদ্যালয়ের চূড়ান্ত পরীক্ষা দেবার যোগ্যতা অর্জন করতে হত। বিদ্যালয়ের অন্ততম অধ্যাপক জগদানন্দ রায় কৃষ্ণনগরের অধিবাসী ছিলেন বলে, নানারকম হুবিধার কথা বিবেচনা করে রথীন্দ্রনাথ ও র্তার সহপাঠী সন্তোষচন্দ্র মজুমদারের কৃষ্ণনগর কেন্দ্রে পরীক্ষা দেবার প্রস্তাব হয়— এই পত্রে রবীন্দ্রনাথ তা অনুমোদন করছেন । এই প্রসঙ্গে ৯-সংখ্যক পত্রের শেষাংশ (পৃ. ১৪ ) দ্রষ্টব্য। “আপনার Reader অগ্রসর হইয়াছে শুনিয়া বড়ই খুশি হইলাম । কপি করিয়া আমাকে পাঠাইলে আমার মন্তব্য জানাইতে চেষ্টা করিব । ঐতিহাসিক পাঠ ও আপনাকে লিখিতে হইবে।” এই সময় বিদ্যালয়পাঠ্য গ্রন্থের বিশেষ অভাব থাকায় রবীন্দ্রনাথ গিরিডিবাসী সুধাংশুবিকাশ রায় সেকালে শাস্তিনিকেতন-বিদ্যালয়ের নির্ধারিত পাঠ্যপুস্তক-তালিক রবীন্দ্রনাথের কাছে প্রার্থনা করায়, উত্তরে রবীন্দ্রনাথ ২৭ ফাঙ্কন ১৩১৩ বঙ্গাব্দে লিখছেন, “পাঠ্যপুস্তকের তালিকা কেন চাহিতেছেন ? পাঠ্যপুস্তক আছে কোথায় যে তালিকা দিব ? ছেলেদের পড়াইতে পড়াইতে প্রত্যহ *ाठीभूखक रेखब्रि इरेब्रां ऐfरख्रह ॥•••"-'ब्रदीवारीचक', नश्कलन >, बांब* se०० 总°●