পাতা:চিঠিপত্র (ত্রয়োদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


*ांखिनिष्कङन cषहरू ७हे नज झक्नश८ब्बब fकांनांब caबिउ रत्र । ডিসেম্বরের শেষভাগে পত্রটি রচিত, অল্পমান করা চলে । “যেভাবে সৰ্ব্বপ্রকার ক্ষোভ প্রশান্ত করিয়া কাৰ্য্যপ্রণালীকে পুনৰ্ব্বার নিষ্কণ্টক শাস্তিতে প্রতিষ্ঠিত করিবার ইচ্ছা ছিল অতিথি থাকাকালে তাহার অবসর পাওয়া অসম্ভব।" এই পত্ররচনার কিছুকাল আগে রবীন্দ্রনাথ বিদ্যালয় পরিচালনার জন্ত মনোরঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়, জগদানন্দ রায় ও স্ববোধচন্দ্র মজুমদারকে নিয়ে 'অধ্যক্ষসমিতি’ গঠন করেন, মনোরঞ্জনকে সভাপতি ও কুঞ্জলাল ঘোষকে ‘কর্মসম্পাদকে’র পদে মনোনয়ন করেন । বিদ্যালয় পরিচালনার জন্ত বিস্তারিত নিয়মাবলী লিখে পাঠান, এই গ্রন্থের ৬-সংখ্যক পত্রে এই প্রসঙ্গের উল্লেখ আছে । কিন্তু রবীন্দ্রনাথ যে প্রত্যাশা নিয়ে এই ব্যবস্থার প্রবর্তন করেছিলেন, তা সফল হয় নি । বিদ্যালয়ের কমী ও অধ্যাপকগণের মধ্যে বিরোধ ও অশাস্তি দেখা দেয় । বর্তমান পত্রে রবীন্দ্রনাথের ক্ষোভ এই কারণেই । পত্রে যে অতিথিপ্রসঙ্গ আছে, সেই অতিথি জগদীশচন্দ্র বন্ধ ও হেমচন্দ্র মল্পিক । জগদীশচন্দ্রের শাস্তিনিকেতনে আসার খবর র্তার চিঠি থেকে জানা যায়, হেমচন্দ্রের আগমন-সংবাদের স্বত্র ক্যাশবহির হিসাব । সম্ভবত পৌষ-উংসবের কিছুদিন পরই তারা শান্তিনিকেতনে এসেছিলেন । পত্র ৯ । সত্যেন্দ্রনাথ । সত্যেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য । রবীন্দ্রনাথের মধ্যম কস্তা রেণুকার স্বামী । সত্যেন্দ্রনাথ L.M.S. ডিগ্রিপ্রাপ্ত অ্যালোপাথ চিকিৎসক ছিলেন । রেণুকার সঙ্গে বিবাহের পরই রবীন্দ্রনাথ তাকে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসাবিষয়ে অধ্যয়নের জন্ত ইংলণ্ডে পাঠান । শাস্তিনিকেতন বিভালয়ের প্রথম পর্বে বিভিন্ন সময়ে সত্যেন্দ্রনাথ ఇ\93