পাতা:চিঠিপত্র (ত্রয়োদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩০৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


টেনডেন্ট ডাক্তার দ্বিজেন্দ্রনাথ মৈত্র রবীন্দ্রনাথের বিশেষ প্রতিভাজন ছিলেন । তার হাসপাতালস্থ বাসভবনের প্রশস্ত ছাদে রবীন্দ্রনাথকে কেন্দ্র করে কখনো কখনো বন্ধু-সন্মিলন হত । মেয়ো হাসপাতালে মনোরঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়ের চিকিৎসার জন্ত রবীন্দ্রনাথ দ্বিজেন্দ্রনাথকে যে চিঠিখানি লিখে দিয়েছিলেন তা ‘স্মৃতি’ [ ১৯৪১] গ্রন্থ থেকে (পৃ. ১০১) উদগ্ধত হল— সবিনয় নমস্কার পূর্বক নিবেদন, জোড়াসাকে৷ কলিকাতা আমার বন্ধু ঐযুক্ত মনোরঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায় মহাশয়ের পায়ে অকস্মাৎ ক্ষত হইয়া দুশ্চিকিৎস্ত হইয়া উঠিয়াছে এইজন্ত অত্যন্ত উৎকণ্ঠিত হইয়াছি । আপনার চিকিৎসাধীনে থাকিলে তাহার উপকার হইবে এবং যত্ব ও শুশ্ৰুষার ক্রটি হইবে না নিশ্চয় জানি এই কারণে র্তাহাকে মেয়ে হাসপাতালে আশ্রয় লইবার জন্ত অনুরোধ করিতেছি। পূৰ্ব্বেও আপনার সহৃদয়তার পরিচয় পাইয়াছি এইজন্ত পুনশ্চ আপনাকে আমার বন্ধুর জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করিতে সঙ্কোচ পরিত্যাগ করিলাম । ইনি অল্পেই উদ্বিগ্ন হইয়া পড়েন বিশেষত এই পা লইয়া ইহাকে দীর্ঘকাল দুঃখভোগ করিতে হইল বলিয়া ইনি হতাশ হুইয়া পড়িয়াছেন । আপনার নিকট হইতে যত্ব ও আশ্বাস পাইলে ইহার মনে বলসঞ্চার হইতে পরিবে এবং আরোগ্যও সহজ হইয়া উঠিবে এই আশা করিয়া আপনার হন্তে ইহাকে সমর্পণ করিতেছি— ইহার ভার গ্রহণ করিয়া আমাকে নিশ্চিম্ভ করিবেন। ইতি ১৩ই অগ্রহায়ণ ১৩১৬ মনোরঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায় মেয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা লাভ করেছিলেন ՀԵրՑ