পাতা:চিঠিপত্র (দ্বাদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১১১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আপনি এসে পড়ে। তখন পরস্পরের ব্যবহার সম্বন্ধে আত্মবিস্মৃতি অন্যায় হলেও নিরতিশয় অসঙ্গত মনে হয় না। তৎসত্ত্বেও নন-কো-অপারেশনের ঘোর আন্দোলনের মুখেও আমার বিরুদ্ধবাদী কোনো পত্রে এমন ভাবে আমার প্রতি গ্রানিপূর্ণ শ্লেষ প্রয়োগ সম্প্রতি কোথাও ঘটেচে বলে জানি নে । মডারন রিভিয়ু ও প্রবাসীতে যে প্রসঙ্গে সমালোচনা বেরিয়েচে সে হচ্চে ফ্যাসিস্ট দলের প্রতি আমার আতিথ্যবিরুদ্ধ ব্যবহার । সে সম্বন্ধে আমার যদি অপরাধ হয়ে থাকে তাeে আমার বন্ধুরা কিঞ্চিৎ ক্ষুব্ধ হতেও পারেন কিন্তু তাদের বক্ত অত্যন্ত বেশি গবম হয়ে ওঠবার মতো বিষয় এটা নয় । আমাব পত্র প্রকাশের পর ইটালীর বাহিবে ভাবতবর্ষ ও য়ুরোপের নান৷ স্থানের কাগজ থেকেই কাট টুকরো পেয়েছি কোথা ও কেউ আমাকে এমন করে খুটিয়ে খুটিয়ে খুচিয়ে খুচিয়ে বক্রোক্তি করেন নি— আমার কৈফিয়ৎটাকে সাধারণত শ্রদ্ধার সঙ্গেই গ্রহণ করেচেন। এমন কি ফৰ্ম্মিকি ও নিরতিশয় ক্ষুব্ধ হলেও দুঃখ প্রকাশ করেচেন আমাকে অসম্মান করেন নি । লেখাটাকে ভুল বলচেন । কিসের ভুল ? ঘটনার ভুল ! এ সম্বন্ধে যেটুকু ঘটনা প্রাসঙ্গিক সে আমার চিঠিতেই আছে । কিন্তু লেখক ব্যঙ্গ করে বলেচেন চিঠি আমার কি ন তাব সন্দেহ রয়ে গেছে । অর্থাৎ তার মতে চিঠি আমার এ তই অযোগ্য যে ওটাকে জাল বলে মনে করলেই আমার লজ্জ। রক্ষা হয়। বোধ করি ইটালীর কোনো ফ্যাসিস্ট কাগজে ও এমন ছদ্মসন্দেহের কুটিল অলঙ্কার প্রয়োগ করা হয় নি । → २