পাতা:চিঠিপত্র (দ্বাদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ব্যাপারের একটা স্পষ্ট দৃশ্য দেখতে পাওয়া এবং তাকে সঙ্গে সঙ্গে প্রকাশ করে বলা দুঃসাধ্য ছিল। আমার জীবনের সেদিনকার এই যে আশ্চর্য ঘটনা সহসা অত্যুজ্জল হয়ে দেখা দিয়েছিল সে সম্বন্ধে কিছু বলবার আমি কে ? আমিই তো ছিলেম সেই ব্যাপারের উপলক্ষ্য, আমিই তো ছিলেম তার কেন্দ্রস্থলে । যারা অনতিদূরে থেকে সেই দৃশ্ব দেখেছেন তারা সে সম্বন্ধে ইচ্ছে করলে বলতে পারতেন । কিন্তু তা তারা বলেন নি, অথচ য়ুরোপের সেই বিপুল সমাদর ব্যক্তিগতভাবে এবং অন্তরঙ্গভাবে তাদের যুক্ত] করে নিয়েছিল। এস্থলে স্বতঃপ্রবৃত্ত হয়ে এই ইতিহাসের কিছুমাত্র আভাস আমার তরফ থেকে দেওয়ায় আত্মশ্লাঘা প্রকাশ হবার আশঙ্কা আছে। অতএব একদিন কোনো মহালগ্নে প্রাচ্য ও প্রতীচ্যের এই ষে মিলন ঘটেছিল তার ইতিহাস বা বিবরণ অকথিত থেকে গেল । হয়তো তাই থাকাই ভালো । আমি এ সম্বন্ধে কোনো অমুশোচনা প্রকাশ করতে একান্ত অনিচ্ছা বোধ করি । কেননা সেদিনকার সেই ভ্রমণ ব্যাপারে র্যাদের সঙ্গ সহায়তা পেয়েছিলুম তাদের অক্লাস্ত সেবা ও সতর্কতা নিরস্তুর না পেলে আমার পক্ষে এক পা চলা অসম্ভব হোতো । তাদের কাছ থেকে যে অকৃত্রিম স্নেহ ও শুশ্রুষা পেয়েছিলুম তা অত্যন্ত মূল্যবান, তারা যদি যুরোপের রাস্তাঘাট থেকে আমার খ্যাতির ছিন্ন চিহ্নগুলো কুড়িয়ে নিয়ে না সংগ্রহ করে থাকেন তবে সেজন্য অনুশোচনা প্রকাশ করতে আমি নিরতিশয় লজ্জা বোধ করি। বস্তুত আমি জানি সেদিনকার সেই খ্যাতির কোনো २ ● é