পাতা:চিঠিপত্র (দ্বাদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ইতালীর প্রশাসন সম্পর্কে তার সপ্রশংস মনোভাব দেশবিদেশে নানা বিতর্কের স্বষ্টি করে । ইতালী ভ্রমণের পর রবীন্দ্রনাথ জেনেভায় উপস্থিত হলে তার সঙ্গে রোলার সাক্ষাৎকার হয় । রোলার মারফৎ ষ্টতালাতে মুসোলিনৗশাসনের স্বরূপ র্তার কাছে উদঘাটিত হয় । রবীন্দ্রনাথ বুঝতে পারেন ইতালীতে ফ্যাসিষ্ট শাসনের কদর্য দিকটি প্রচ্ছন্ন রেখে তাকে শুধুমাত্র বাহিক উন্নতির দিকটাই দেখানো হয়েছিল। অতঃপর ইতালীর ফ্যাসীবাদী সম্বাসের ফলে ঐ দেশের দেশত্যাগী অধ্যাপক সালভাদোরির স্ত্রীর কাছ থেকে রবীন্দ্রনাথ যে বিবরণ শোনেন তাতেও ইতালীয় সরকারের বর্বর নিষ্ঠুরতার দিকটি তার কাছে স্পষ্ট হয়ে দেখা দিয়েছিল ২ তখনই রবীন্দ্রনাথ মুসোলিনী ও ইতালীর ফ্যাসীবাদ সম্পর্কে নিজ অভিমত ব্যক্ত করে শাস্তিনিকেতনে এণ্ড জকে এক পত্র দেন । ইংলণ্ডের পত্র-পত্রিকায় প্রকাশের উদ্দেশ্যে তিনি এই পত্রের একটি প্রতিলিপি এলমহাস্ট কে ও পাঠান । এটি ম্যানচেস্টার গারডিয়ান ( ৫ আগস্ট ১৯২৬ ) পত্রিকায় মুদ্রিত হলেও বিশ্বের মানুষের কাছে ফ্যাসীবাদ সম্পর্কে কবির প্রতিকুল মনোভাব প্রকাশ পায় । ১ দ্র: অবস্তীকুমার সান্তলি, রম্য র ল্য, ভারতবর্ষ’ ( ১৯৭৬ ) • > Q తి - bet ఎ R a: Rabindranath Tagore's Interview with an Italian Exile's wife, Visva-Bharati Bulletin, Oct 1926 P 299-203. ৩ পত্রটি বিশ্বভারতী কোয়ার্টালি, অক্টোবর ১৯২৬-এ আংশিক মুদ্রিত হয় । সম্পূর্ণ পত্রটি পরিশিষ্টে-সংযোজিত হল। ●切"> לסיןא כ