পাতা:চিঠিপত্র (দ্বাদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


যে-পরিচয় আমরা তাহাদিগের বিশ্বভারতীর সহিত কলিকাত? বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘনিষ্ঠ সম্বন্ধ স্থাপন চেষ্টার মধ্যে পাইয়াছিলাম । কবি রবীন্দ্রনাথ যে-বিশ্ববিদ্যালয় ও তাহার শিক্ষানীতির আজন্ম সমালোচক সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের সহিত যখন বিশ্বভারতীর সম্বন্ধ স্থাপনের চেষ্টা হয় তখন আমরা সে-চেষ্টার মধ্যে compromise বা আদর্শ ক্ষুন্ন করিয়া লাভের চেষ্টার পরিচয় পাই । এই অল্প লাভের অশি। রবীন্দ্রনাথের ন্যায় মহান ব্যক্তির কল্পনাপ্রস্থত নহে । কারণ যে-কবি, যে-মহাপুরুষ স্থান কাল ও পাত্রের সকল প্রলোভন, অত্যাচার প্রভৃতি অগ্রাহ করিয়া দীর্ঘ পঞ্চাশ বর্ষাধিককাল নিজের জীবনের অা দশের গতি শ্রেয়ের পথে রাখিৰার জন্য প্রাণপণ করিয়া জাসিয়াছেন, তিনি কদাপি ক্ষুদ্র সুবিধার চেষ্টায় অাদর্শকে বলিদান দিতে পারেন না । যে অদূরদর্শিতার ও আদর্শনিষ্ঠার অভাবের পরিচয় আমরা ঐ বিশ্ববিদ্যালয়ঘটিত ব্যাপারে প্রথম পাই, আজ কবির কৰ্ম্ম সচিবদিগের ইতালীয় ‘এডভেনচারে আমরা তাহারই পরিচয় দ্বিতীয় দফায় পাইলাম।”—প্রবাসী আশ্বিন ১৩৩৩, পৃ ৯৮৯ মডার্ণ রিভিয়ু পত্রিকা, সেপ্টেম্বর ১৯২৬, পৃ ৩৪৩-৩৪৪-এ ‘Tagore’s Condemnation of Fascism' or of Sass, of 8* -- 8 - a “Dr. Tagore's European Tour sist-is w:-iভাবে মন্তব্য করা হয় । ৭৯ সংখ্যক পত্রের স্বচনায় প্রবাসী ও মডান রিভিয়ুর এইসব মস্তব্যের কথাই কবি উল্লেখ করছেন । 'আপনার চিঠি’— প্রবাসী ও মডান রিভিয়ুতে প্রকাশিত উল্লিখিত মস্তব্যের জন্য পত্রিকাদ্বয়ের তৎকালীন সম্পাদক অশোক চট্টোপাধ্যায়ের দায়িত্বক্ষালনের চেষ্টায় রামানন্দ জেনিভা থেকে ●*○