পাতা:চিঠিপত্র (দ্বাদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫২১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ও জ্যৈষ্ঠমাসে (১৩৩৪) প্রকাশিত হয়েছিল। পত্র ৮ম । যখনি...বসেচি’। এই উপন্যাস ‘তিন পুরুষ । পরে এর নামকরণ হয় যোগাযোগ'। বিচিত্র পত্রিকায় প্রকাশের তাগিদে। মে ১৯২৭-এ গ্রন্থটির রচনার সূত্রপাত হয়। এটি আশ্বিন ১৩৩৪ থেকে চৈত্র ১৩৩৫ পর্যন্ত ‘বিচিত্রা’ পত্রিকায় ধারাবাহিকভাবে প্রকাশিত হয় । যোগাযোগ’ রচনাকালে রবীন্দ্রনাথ প্রবাসীর জন্ত ‘শেষের কবিতা' রচনা করেন । শেষের কবিতা’ প্রবাসীতে ভাদ্র ১৩৩৫ থেকে চৈত্র ১৩৩৫ পর্যস্ত ধারাবাহিকরূপে প্রকাশিত হয় । পত্র ১• । 'চিঠি দুটো চট্টগ্রামের মুনসেফ জ্ঞানচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায় রবীন্দ্রনাথের ‘কর্তার ইচ্ছায় কৰ্ম্ম’ ( ভাদ্র ১৩২৪ ) পড়ে কবিকে যে পত্র লেখেন রবীন্দ্রন।ধ তার উত্তরে ৬ ভাদ্র ১৩২৪ তাকে একটি পত্র দেন। পরে ভাদ্র ১৩২৯-এ প্রবাসীতে প্রকাশিত রবীন্দ্রনাথের ‘বিদ্যাসাগর’ প্রবন্ধ পাঠ করে জ্ঞানচন্দ্র ৪ ভাদ্র ১৩২৯, ২১ অগস্ট ১৯২২-এ রবীন্দ্রনাথকে আর একটি চিঠি দিয়েছিলেন । রবীন্দ্রনাথ এই চিঠির উত্তর দেন ৬ ভাত্র ১৩২৯ । রবীন্দ্রনাথের এই দুটি পত্রই প্রবাসীতে শ্রাবণ ১৩৩৫ সালে প্রকাশিত হয় । ‘অরবিন্দ ঘোষ • • • দেব।" মাত্রাজ থেকে কলম্বো যাওয়ার পথে শ্রীঅরবিন্দের অন্তরোধক্রমে রবীন্দ্রনাথ পণ্ডিচেরীতে র্তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ২৯ মে ১৯৩০ । এই সাক্ষাৎকার সম্বন্ধে নির্মলকুমারী মহিলানবিশ লেখেন : “কবি জাহাজে ফিরে এসে বললেন অরবিন্দকে দেখে খুব আশ্চর্য লেগেছে। একেবারে উজ্জল চেহারা— চোখ দুটোর মধ্যে কী আছে বর্ণনা করা যায় না, এমন 0b/Ꮂ