পাতা:চিঠিপত্র (দ্বাদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৮২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


હૈં শ্রদ্ধাস্পদেষু আপনি গল্প চান কিন্তু মনে ত হয় আমার বড় গল্প লেখবার শক্তি ফুরিয়ে গেছে । আসল কথা, ক্লাস্তিতে আজকাল মনটা যেন ঝুকে পড়েচে । ইচ্ছা করচে কলমের গোলামী সম্পূর্ণ ত্যাগ করে এখানে ছেলেদের ক্লাশে মাষ্টারিতে ভৰ্ত্তি হই । দুটো ক্লাশ পড়াতে শুরু করেচি— বেশ ভাল লাগচে । সন্ধ্যার সময় মানুষের ঘরে ফেরবার সময় আসে– তখন বড় সংসারের কাজ আর চলে না । ছোট ছেলেদের মধ্যে আমি সেই ঘরটুকু পাই । আর ত পাব্লিকের হাটে কারবার করতে একেবারেই ভাল লাগে না । আমার একদিন ছিল যখন প্রকৃতির সঙ্গে আমার গভীর একটা মিল ছিল । মাঝে এল লোকালয় । সেখানে প্রায় পচিশ বৎসর ধরে হুটোপাটি করেচি। আজ আবার দেখচি বিশ্বপ্রকৃতি আমার জানলায় এসে উকি মারচে । বড় আকাশ থেকে আমার ডাক আসচে। পৃথিবী থেকে আমার বিদায়ের রাস্তা ঐ দিক দিয়েই কোথায় চলেচে । এখনকার খাতাপত্র বন্ধ করে আবার আমাকে বেরতে হবে । জীবনের আরস্তে বিশ্ব আমার কাছে এসেছিল, জীবনের পরিণামে আমাকেই সেই বিশ্বের দিকে চলতে হবে, সেই দিকেই আমার কিছু পাবার আছে, কিছু দেবার অাছে— হয় ত ঐখান থেকেই সমস্ত ভাঙা জুড়ে নিয়ে, বেস্থর সেরে নিয়ে তবে আবার রাজার আরেক দরবারে তালিম দিতে পারৰ । ატ %