পাতা:চিত্রাবলি - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৯৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অলঙ্কার । 罚 উদ্যোগী হইয়াছিল। সেবার, মধুসের স্ত্রী থাকমা, আতঙ্কে বাড়ী হইতে ছুটিয়া পলাইয়া আসিয়া, কমলার পা-দুখানি জড়াইয়া ধরে ; কঁাদিতে কঁাদিতে প্রার্থনা জানায়,-“মাগো আমার ধৰ্ম্ম রক্ষা কর । আমার স্বামীরে বঁাচাও ” আরও মৰ্ম্মভেদী স্বরে বলে,-“যমদূতেরা এতক্ষণ বোধ হয় তাকে খুন করে ফেললে ! আপনি না বাচালে, আমাদের বাচাবার আর কে আছে,—বলুন !” কমলা, সেবার লোক পাঠাইয়া, পত্তনিদারের প্রাপ্য গও চুকাইয়া দিয়া মধুদাসকে রক্ষা করিয়াছিলেন ; অধিকন্তু, সেই সমস্ত ব্যাপার যদুপতিকে জানাইয়া অত্যাচারের প্রতিকার-উপায় নিৰ্দ্ধারণের জন্ত চেষ্ট পাইয়াছিলেন। তদবধি, যদুপতির বাসগ্রাম নন্দনপুর, যদুপতি নিজেই পত্ত্বনি গ্রহণ করিয়াছেন ; কমলার প্রতি গ্রামের দীন-দুঃখী প্রজাগণের আশীৰ্ব্বাদের আর অবধি নাই। কমলার আর এক গুণ,-কমলা পরসেবায় কখনও কাতর নহে। প্রতিবাসী কেহ অন্নকষ্টে ক্লিষ্ট, কেহ রোগশয্যায় শান্ধিত, তাহাদের কষ্ট-নিবারণে–সন্তাপ-দূরীকরণে, কমলা নিয়ত যত্নশীলা। ঐ যে পশ্চিমপাড়ার কুঁড়ে ঘরখানির মধ্যে দুটি অপগোও শিশু-সন্তান-সহ রামহরি চক্ৰবৰ্ত্তীর বিধবা পত্নী কুমুদিনী | দেবীক দেখিতেছেন ;-ৰলিতে পারেন কি, তাহার চলে কি । করিয়া ? রামহরির অবস্থা তো কাহারও অবিদিত নাই! ੇ:- .الله yస్టి