পাতা:চিদ্বিলাস - বিনয় কুমার সান্যাল.pdf/৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
৪২
চিদ্বিলাস।



ইত্যাদি বলা হইয়াছে তাহা যথার্থতত্ত্ব নহে, সেগুলি ব্যবহারিকভাবে বলা হইয়াছে। তিনি বলেন যে শ্রুতির পারমার্থিক অংশ নির্গুণ বিদ্যা এবং ব্যবহারিক অংশ সগুণ বিদ্যা। জ্ঞানীদিগের পক্ষে নির্গুণ বিদ্যা এবং অজ্ঞানী দিগের পক্ষে সগুণ বিদ্যা; অর্থাৎ যতক্ষণ অজ্ঞান থাকে ততক্ষণই সগুণ বিদ্যা থাকে যখনই অজ্ঞানের নাশ হয় তখনই নির্গুণ বিদ্যা। অজ্ঞানী নির্গুণ বিদ্যার অধিকারী নহে; তাঁহাকে সগুণ বিদ্যা অবলম্বন পূর্ব্বক জ্ঞানমার্গে আরোহন করিতে হইবে; এবং যখন তিনি জ্ঞানলাভ করিবেন তখন সূর্য্য উদয়ে অন্ধকারের ন্যায় নির্গুণ বিদ্যা তাঁহার নিকট হইতে দূরে চলিয়া যাইবে। জ্ঞান শব্দে ব্যবহারিক জ্ঞান বুঝায় না। ব্রহ্ম ব্যবহারিক জ্ঞানগম্য নহেন কারণ তিনি “অবাঙ্‌ মনসো গোচরং” বাক্য ও মন দ্বারা তাঁহার উপলব্ধি হয় না। “যতো বাচো নিবর্ত্তন্তে অপ্রাপ্য মনসা সহ,” “বিজ্ঞাতম্ অবিজানতাম্”, “অবিজ্ঞাতম্ বিজানতাম্” ইত্যাদি দ্বারা তিনি মন ও বুদ্ধির অতীত ইহা