পাতা:চিদ্বিলাস - বিনয় কুমার সান্যাল.pdf/৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
৫৩
বেদান্ত দর্শন।

বিয়য় হইতে মনের নিবৃত্তি বুঝায়; অর্থাৎ সাধক যখন উপাসনা এবং তাহার জন্য যে সমস্ত বহিরঙ্গ সাধন আবশ্যক তদতিরিক্ত অপর কোন বিষয়কে মনেতে স্থান দেন না তখনই তাঁহার শম সিদ্ধ হয়। সাধনের অন্তরঙ্গ ও বহিরঙ্গ বিষয় ব্যতীত অন্যান্য বিষয় হইতে সমস্ত ইন্দ্রিয়গ্রামকে সাধক যখন নিবৃত্ত করেন তখন তাঁহার দম সিদ্ধ হইল। সাধক যখন সন্ন্যাসাশ্রম অবলম্বন পূর্ব্বক সমস্ত শাস্ত্রোক্ত কাম্য কর্ম্ম পরিত্যাগ করেন তখনই তাঁহার উপরতি সিদ্ধ হইল। সন্ন্যাস কাহাকে বলে তাহা ভগবান শ্রীকৃষ্ণ গীতাতে ভালরূপে বুঝাইয়াছেন। তিনি বেশ ভাল করিয়া বলিয়াছেন যে অন্তরে সন্ন্যাস ভাব না আসিলে কেবল বাহিরে সন্ন্যাসী হইলে বিড়ম্বনা মাত্র—তাহা মিথ্যাচারমাত্র। অতএব সমস্ত প্রকার শাস্ত্রীয় কর্ম্মত্যাগের পূর্ব্বে সাধক যেন ভাল করিয়া দেখেন যে তাঁহার মনে কোন প্রকার বাসনা আছে কিনা? কারণ মনে মনে বাসনা করিলেই যথার্থরূপে কর্ম্ম বন্ধন হয়; মনই সমস্ত কর্ম্ম করে শরীর একটা উপাদান কারণমাত্র। যথার্থ সন্ন্যাস যখন মনেতে উপস্থিত হয়