পাতা:জয়তু নেতাজী.djvu/১৩৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


న8 জয়তু নেতাজী হয়, যদি সেই মহাবীৰ্য্যবান, মহাপ্রেমিক, মহাপ্রাণ পুরুষ-বীরের আত্মোৎসর্গ আমাদিগকে মুক্তির পথে অগ্রসব না করিয়া থাকে, তবে আমাদের মুক্তির আর কোন আশাঙ্গ নাই । নেতাজীর পস্থাকে যাহারা কেবল হিংসা বা যুদ্ধের পস্থা বলিয়াত মনে কৰে তাহারা এখনও তাহার জীবনেব মূলমন্ত্র বুঝতে পারে নাক, সে মন্ত্র—“স্বাধীনতা আগে, পরে আর সব ।” সেই স্বাধীনতার ঐকাস্তিক আকাঙ্ক্ষা, এবং তাহার জন্ম সেই প্রেম ও সেহ KStSAgB00 B B KBB BBKS BB KBBSBBBBBBB মন্ত্রশিষ্য নেতাজী তাহাকেই একমা এ উপায় ব'লয়। জানেন । গান্ধীজীর প্রেৰণা সম্পূর্ণ moral - নেঙাঞ্জাব প্রবণ। একান্তভাবে spiritual ; একটিতে আছে সংকল্প-বিকল্প মুক মনের উপরে ধৰ্ম্মাধৰ্ম্মবোধের কঠিন শাসন, আব একটিতে আছে “বুদ্ধে: পৰতস্তু" যে, সঙ্গ আত্মার সবববন্ধন-মুক্তি – আকুষ্টি • প্রসার, অসীম স্ফf । গান্ধীজী ধমক দেন, হংসনা কবেন , নেতাজী বুকে জড়াইয়া ধরেন । গান্ধীজ বলেন, তোমহ। ছুকবল, পাপচিত্ত— আমি করিব কি ? নেতাজা বলেন, কোন ভয় নাই, তোমাদেৰ ভিতরে অনন্ত শক্তি আছে ; বিশ্বাস ক০ আমাকে দেখ, তোমাদের পক্ষেও কিছু অসাধ্য নয় । গান্ধীজী নিয়মিত ভজনের দ্বার), আfত্মশুদ্ধি ব) পাপমোচনের উপদেশ দেন, নেতাজী ভগবানের নাম করেন না, মানুষের নামই করেন ঠাইবি ধৰ্ম্ম-ভগবানকে ভক্তি নয়, মানুষকে প্রেম ; সেই প্রেমে পাপের চিন্তামাত্র নাই। নেতাঞ্জার মধ্যে যে-শক্তির স্ফুরণ আমরা