পাতা:জয়তু নেতাজী.djvu/২৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পরিশিষ্ট ఇe) থাবা মারিয়া সব ঠাও। করিয়া দিত। আসলে গান্ধী-সৈঙ্গের সত্যাগ্রহীরা ইংরেজকে কিছুমাত্র শঙ্কিত করিতে পারে নাই—উত্তেজিত করিয়াছিপ মাত্র ; যদি কেহ উদ্বিগ্ন করিয়া থাকে—লে ঐ বিপ্লবীগণ । এইরূপে ১৯২৯-৩০ সাল আসিয়া পড়িল । ইহার পর যাহা ঘটিয়াছিল, আমি পুৰ্ব্বে তাহ সৰিস্তারে বলিয়াছি । স্বভাষচজ ১৩৩৪ পর্য্যস্ত গান্ধী-কংগ্রেসের সেই নাকালের কথা লিপিবদ্ধ *forces, fefs 4: *fastwow “Defeat and Surrender” নাম দিয়া পৃথক অধ্যায়ে তাহার আলোচনা করিয়াছেন । সে যে কেমন “পরাজয় ও আত্মসমৰ্পণ” তাহার একটি নমুনা উদ্ধৃত করি— ‘This meeting (A I. C C –Patna 1933) offered a surprise to the public in as much as Mahatma Gandhi himself sponsored the idea that Congressmen should enter the legislatures —After the meeting when the Government felt that the defeat and humiliation of the Congress was complete--they withdrow the ban on most of the Congress Organisations in the country and allowed them to function'. (P. 370). আমি পূৰ্ব্বে গান্ধীর সেই একক-যুদ্ধ-অভিনয়ের হান্তকর সংকল্প এবং তাহার শোচনীয় পরিণাম উল্লেখ করিয়াছি । লর্ড উইলিংডনই গান্ধীংগ্রেসের সেই কৰ্ম্মভোগ, তাহাব সেই গত্যন্তরহীন অবস্থা ঘুচাইয়া তাহাকে মুক্তি দিয়াছিলেন । ইহার পর ব্রিটিশ গভর্ণমেণ্ট আপন খুলীমত তাহাকে ওঠ-বোস করাষ্টয়াছে। গান্ধী স্পষ্টই বুঝিতে পারিলেন, ব্রিটিশের সহিত তিনি রাজনীতির যুদ্ধে পারিয়া উঠিবেল ন! –আস্ততঃ তিনি যে উপায়ে তাহদের হিত গাধন করিতে চাহিয় - ছিলেন, তাহারা তাহ গ্রাহ করিবে না । কিন্তু তখন সেইরূপ রাজনীতির মুখোশেও আর প্রয়োজন নাই ; জনগণ এখন সম্পূর্ণ বশীভূত হইয়াছে, তাই ব্রিটিশকে ছাড়িয়া তিনি এইবার তাহার নেতৃত্ব আর এক