পাতা:জয়তু নেতাজী.djvu/৫০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Yo জয়তু নেতাজী নিষ্ফল হইতে পারে না। এখানেও মানুষকে মানুষের ভাষায় সেই পুরুষ আশ্বাস দিতেছেন— স্মৃতির হিমাদ্রিশিরে, জীবযাত্রা-উৎস-মূলে, মানৰ মানলে— সে কীৰ্ত্তি-কিরণ যে-ঠাই যেখানে পড়ে, মৃতসঞ্জীবন সেই প্রাণের পরশে মবিবে মরণ ! যে দীপ নিৰ্মাণ আজি, বিফল হয়েছে ষেই পুণ্য অবদান, কালকূক্ষিগত— সেই ব্যথা, ব্যথিতের চঞ্জানন ফারাবে না, স্ন'বে জ্যোতিষ্মান, সুন্দর, শাশ্বত । —এ সকল কথা নূতন নয়, বরং অতিশয় পুরাতন ; এ সেই গীতার কথা—“নতি কল্যাণকুৎ কশ্চিৎ দুৰ্গতিং তাত গচ্ছতি, ‘স্বল্পমপ্যস্ত ধৰ্ম্মস্ত ত্রায়তে মহতো ভয়াৎ", "ন হন্ততে হস্যমানে শরীরে'—‘তস্মাৎ যুদ্ধশ্ব, ভাবত ? কিন্তু কোন সত্য পুরাতন নয়? সেই পুরাতনকেই নূতন করিয়া তুলিতে না পারিলে তাহার মূল্যই বা কি ? এ বাণী কেবল তাহারই কণ্ঠে জীবন্ত হইয়া উঠে— যে স্বয়ং পুরুষ-যজ্ঞের সেই পুরুষ, যে নিজেকে নিঃশেষে সেই যজ্ঞে আহুতি দিয়াছে । এই বাণী প্রচারিল দেশ-জাতি-ভ্রাতা সেই ঘেৰতার মুখে, আজও সেই গান