পাতা:জয়তু নেতাজী.djvu/৯২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


& R জয়তু নেতাজী রাজা ও বাজ্য ও বহু রাষ্ট্রবিপ্লবে অক্ষত—তাতার সেই সমাজ তাহার সেই স্বাধীনতার একমাত্র তুর্গ স্বহস্তে ভাঙ্গিয়া ফেলিল, জানিতেও পারিল না, নিজের কি সৰ্ব্বনাশ করল । হিন্দুর সমাজ গিয়াছে, তাহ আজ সে এত অসহায় ; মুসলমানের সমাজ এখনও অক্ষত আছে, তাই তাহার সুযোগ এত, ভরসাও এত । যতদিন ঐ সমাজ-শাসন ছিল ততদিন কোন বাজশক্তি এ জাতির স্বাধীনতা হরণ করতে পাপে নাই । ইংরেজ যেদিন নন্দকুমারকে ফঁাসি দেয় সেই দিনই বুঝিয়াছিল, তাহার রাজশক্তির সীমা কোথায় । সে ঐ ব্রাহ্মণ সমাজপতিকে ফঁাসি দবাৰ সময়ে ভাবিয়াছিল, সে বুঝি তাহার রাজমহিমাকে আৰ ৫ নিঃসংশয়রূপে প্রতিষ্ঠিত কৰিল । কই কোন বিদ্রোহ ৩’ ঘটিল না ; পৰে সে বুঝিয়াছিল, বিদ্রোহ ইহার করবে না, তাতার কারণ রাজশক্তির সহিত এ জাতিব কোন বিবাদ মাঠ —সেখানে সে যুদ্ধ করিবে না । নন্দকুমারকে যে শক্তি ফার্সি দিয়াছে, সে শক্তি নন্দকুমাবের সমাজপতি ইকে ফঁাসি দিতে পারে নাই- পালিৰে না। ঐ ঘটনায় সমস্ত দেশ নিঃশ্বাস রুদ্ধ কfরয় মূক মেীন স্তম্ভিতভাবে, কেবল সেই রাজশক্তির ব্যভিচাব দেখিয়াছিল – তাহার ফুর্ভেদ্য সমাজ-দুর্গে কোন আঘাঙ বা আক্রমণ অনুভব কবে নাই ; সেখানে সে অসীম শক্তিতে শক্তিমান ; তাই কেবল তাহার দেহে রাজদণ্ডের সেই অশুচি স্পর্শ ধৌত করিবার জন্ম সেদিন সে বধ্যভূমির প্রাস্তবাঙ্গ পতিতপাবনীর জলে অবগাহন করিয়াছিল । ইংরেজ সে দৃশু ভোলে নাই ; ওই ব্রাহ্মণ ওই সমাজ