পাতা:জীবন-স্মৃতি - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


У X o জীবন-স্মৃতি । শাহিবাগে জজের বাস। ইহা বাদশাহি আমলের প্রাসাদ, বাদশাহের জন্যই নিৰ্ম্মিত। এই প্রাসাদের প্রাকারপাদমূলে গ্রীষ্মকালের ক্ষীণস্বচ্ছস্রোত সাবরমতী নদী তাহার বালুশয্যায় একপ্রান্ত দিয়া প্রবাহিত হইতেছিল। সেই নদীতীরের দিকে প্রাসাদের সম্মুখভাগে একটি প্রকাগু খোলা ছাদ । মেজদাদা আদালতে চলিয়া যাইতেন। প্রকাণ্ড বাড়িতে আমি ছাড়া আর কেহ থাকিত না—শব্দের মধ্যে কেবল পায়রাগুলির মধ্যাহ্নকুজন শোনা যাইত। তখন আমি যেন একটা অকারণ কৌতুহলে শূন্য ঘরে ঘরে ঘুরিয়া বেড়াইতাম । একটি বড় ঘরের দেয়ালের খোপে খোপে মেজদাদার বইগুলি সাজানো ছিল। তাহার মধ্যে, বড় বড় অক্ষরে ছাপা, অনেকছবিওয়ালা একখানি টেনিসনের কাব্যগ্রন্থ ছিল । সেই গ্রন্থটিও তখন আমার পক্ষে এই রাজপ্রাসাদেরই মত নীরব ছিল । আমি কেবল তাহার ছবিগুলির মধ্যে বারবার করিয়া ঘুরিয়া ঘুরিয়া বেড়াইতাম । বাক্যগুলি যে একেবারেই বুঝিতাম না, তাহা নহে—কিন্তু তাহ বাক্যের অপেক্ষ আমার পক্ষে অনেকটা কৃজনের মতই ছিল । লাইব্রেরিতে আর একখানি বই ছিল সেটি ডাক্তার হেবর্লিন কর্তৃক সঙ্কলিত ক্রীরামপুরের ছাপা পুরাতন সংস্কৃত কাব্যসংগ্রহগ্রন্থ। এই সংস্কৃত কবিতাগুলি বুঝিতে পারা আমার পক্ষে অসম্ভব ছিল। কিন্তু সংস্কৃত বাক্যের ধবনি এবং ছন্দের গতি আমাকে কতদিন মধ্যাহ্লে অমরুশতকের মৃদঙ্গঘাত- গম্ভীর শ্লোকগুলির মধ্যে ঘুরাইয়া ফিরিয়াছে। এই শাহিবাগপ্রাসাদের চূড়ার উপরকার একটি ছোট ঘরে আমার আশ্রম ছিল । কেবল একটি চাকভরা বোলতার দল আমার এই ঘরের অংশী । রাত্রে আমি সেই নির্জন ঘরে শুইতাম—এক একদিন অন্ধকারে দুই একটা বোলত চাক হইতে আমার বিছানার উপর আসিয়া পড়িত— যখন পাশ ফিরিতাম তখন তাহারাও প্রীত হইত না এবং আমার পক্ষেও তাহা তীক্ষভাবে অপ্রীতিকর হইত। শুক্লপক্ষের গভীর রাত্রে সেই নদীরদিকের প্রকাণ্ড ছাদটাতে একলা ঘুরিয়া ঘুরিয়া বেড়ানো আমার আর-একটা উপসর্গ ছিল । এই ছাদের উপর নিশাচৰ্য্য করিবার সময়ই আমার নিজের