পাতা:জীবন-স্মৃতি - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৫৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাজেন্দ্রলাল মিত্র । × \ყ(* যখনতখন র্তাহার সঙ্গে দেখা করিতে যাইতাম । আমি সকালে যাইতাম— দেখিতাম তিনি লেখাপড়ার কাজে নিযুক্ত আছেন। অল্পবয়সের অবিবেচনাবশতই অসঙ্গোচে অামি র্তাহার কাজের ব্যাঘাত করিতাম । কিন্তু সে জন্য র্তাহাকে মুহূৰ্ত্তকালও অপ্রসন্ন দেখি নাই । আমাকে দেখিবামাত্র তিনি কাজ রাখিয়া দিয়া কথা আরম্ভ করিয়া দিতেন । সকলেই জানেন তিনি কানে কম শুনিতেন । এই জন্য পারতপক্ষে তিনি তামাকে প্রশ্ন করিবার অবকাশ দিতেন না। কোনো একটা বড় প্রসঙ্গ তুলিয়া তিনি নিজেই কথা কহিয়া যাইতেন । র্তাহার মুখে সেই কথা শুনিবার জন্যই আমি তাহার কাছে যাইতাম । তার কাহারে সঙ্গে বাক্যালাপে এত নূতন নূতন বিষয়ে এত বেশি করিয় ভাবিবার জিনিষ পাই নাই। আমি মুগ্ধ হইয় তাহার আলাপ শুনিতাম। বোধ করি তখনকার কালের পাঠ্যপুস্তকনির্নর্বাচনসমিতির তিনি একজন প্রধান সভ্য ছিলেন । তাহার কাছে যেসব বই পাঠানো হইত তিনি সেগুলি পেন্সিলের দাগ দিয়া নোট করিয়া পড়িতেন । এক একদিন সেই রূপ কোন একটা বই উপলক্ষ্য করিয়া তিনি বাংলাভাষারীতি ও ভাষাতত্ত্ব সম্বন্ধে কথা কহিতেন, তাহাতে আমি বিস্তর উপকার পাইতাম । এমন তাল্প বিষয় ছিল যে সম্বন্ধে তিনি ভাল করিয়| আলোচনা না করিয়াছিলেন এবং যাহাকিছু তাহার আলোচনার বিষয় ছিল তা হাই তিনি প্রাঞ্জল করিয়া বিবৃত করিতে পারিতেন। তখন যে বাংলা সাহিত্যসভার প্রতিষ্ঠাচেষ্টা হইয়াছিল সেই সভায় আর কোনো সভোর কিছুমাত্র মুখাপেক্ষা না করিয়| যদি একমাত্র মিত্র মহাশয়কে দিয়া কাজ করাইয়া লওয়া যাইত তবে বর্তমান সাহিত্যপরিষদের অনেক কাজ কেবল সেই একজন ব্যক্তিদ্বারা অনেক দূর অগ্রসর হইত সন্দেহ নাই। কেবল তিনি মননশীল লেপক ছিলেন ইহাই তাহার প্রধান গৌরব নহে । র্তাহার মূৰ্ত্তিতেই তাহার মনুষ্যত্ব যেন প্রত্যক্ষ হইত। অামার মত অববাচীনকেও তিনি কিছুমাত্র অবজ্ঞা না করিয়া ভারি একটি দক্ষিণ্যের সহিত আমার সঙ্গেও বড় বড় বিষয়ে আলাপ করিতেন—অথচ তেজস্বিতায় তখনকার