পাতা:টুনটুনির বই.djvu/১০৪

উইকিসংকলন থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।


কোথায়? বুঝেছি, এখানে কুমির আছে!’ তখন সে বললে, ‘এখানকার জলটা বেজায় পরিস্কার। একটু ঘোলা না হলে কি খাওয়া যায়? চল শিয়ালনী আরেক জায়গায় যাই।’ এ কথা শুনেই কুমির তাড়াতাড়ি সেখানকার জল ঘোলা করতে আরম্ভ করলে! তা দেখে শিয়াল হাসতে হাসতে ছুটে পালিয়েছে!

 আর একদিন শিয়াল এসেছে কাঁকড়া খেতে। কুমির তার আগেই সেখানে চুপ করে বসে আছে। শিয়াল তা টের পেয়ে বললে, ওখানে কাঁকড়া নেই, থাকলে দু-একটা ভাসত।’


‘এটা দেখছি বড় বেশী মরে গেছে!’ [ পৃঃ ৯৯

 অমনি কুমির তার লেজের আগাটুকু ভাসিয়ে দিল। কাজেই শিয়াল আর জলে নামল না।

 এমনি করে বার-বার শিয়ালের কাছে ঠকে গিয়ে, শেষে কুমিরের ভারী লজ্জা হল। তখন সে আর কি করে মুখ দেখাবে! কাজেই সে তার ঘরের ভিতরে গিয়ে বসে রইল।

১০০