পাতা:ঠাকুরমার ঝুলি.djvu/১১৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

--দুধের সাগর সে সব যে virvo is সে বড় বীর ” বলিতে বলিতে সন্ন্যাসী চলিয়া গেলেন । অরুণ বরুণ বলিলেন,-“বোন, আমরা এ সব আনিব।” ( ७० ) অরুণ বলিলেন,-“ভাই বরুণ, বোন কিরণ, তোরা থাক, আমি মায়া পাহাড়ে গিয়া সব নিয়া আসি।” বিলিয়া অরুণ, বরুণ কিরণের কাছে এক তারোয়াল দিলেন,-“যদি দেখ, বে, তরোয়ালে মরিচা ধরিয়াছে, তো জানিও আমি আর বঁাচিয়া নাই ।” তরোয়াল রাখিয়া অরুণ চলিয়া গেলেন। দিন যায়, মাস যায়, বরুণ কিরণ রোজ তারোয়াল খুলিয়া খুলিয়া দেখেন। একদিন, তরোয়াল খুলিয়া বরুণের সুখ শুকাইল ; ডাক দিয়া বলিলেন,-“বোন, দাদা আর এ সংসারে নাই ! এই তীর ধনুক রাখি, আমি চলিলাম। যদি তীরের আগা খসে, ধনুর ছিল ছিড়ে, তো জানিও আমিও নাই।” কিরণমালা অরুণের তরোয়ালে মরিচ দেখিয়া কঁাদিয়া অস্থির। বরুণের তীর-ধনুক তুলিয়া নিয়া বলিল,-“হে ঈশ্বর ! বরুণদাদা যেন অরুণদাদাকে নিয়া আসে * ( S) w যাইতে যাইতে বরুণ মায়া পাহাড়ের দেশে গেলেন। অমনি চারিদিকে বাজনা বাজে, অন্সরী নাচে-পিছন হইতে SYK Sa\e