পাতা:ঠাকুরমার ঝুলি.djvu/২২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

ঠাকুরমা’র বুলি তার উপর আবার বামুণের চাটাল চ্যাটাল কথা। জ্বালাতন পালাতন বামুণী ধান ঝাড়ে, তা’র তুষ ফেলে, কি, ধান ফেলে! এমন সময় ব্ৰাহ্মণ গিয়া বলিল,-“বামুণী, আজ বুঝি। পিটে করবি, না ?” কুলো মুলো ফেলিয়া খ্যাংরা নিয়া ব্ৰাহ্মণী গৰ্জে’ উঠিল,— “হঁ, পিটে কয়তেই বসেছি ! চাল বাড়ন্ত হঁাড়ি খটু খটু-এক কড়ার মুরোদ নাই। পিটা-থেকোর পুত পিটা খাবে!—বোরো আমার বাড়ী থেকে ৷” গৰ্জনে উঠান কঁপে, গাছ থর থর পক্ষী উড়ে -ব্ৰাহ্মণ ভাবৃলেন— “কি ? ব্রাহ্মণী, তা’র গালি সইব, এত্ত আমি ? তা’ হবে না ?” তখনি রাগে হ’লেন বনগামী ! ( & ) বনে বনে ঘোরেন, এমন সময় এক সন্ন্যাসীর সঙ্গে ব্ৰাহ্মণের দেথা । সকল কথা শুনিয়া, সন্ন্যাসী, ব্ৰাহ্মণকে আপন আশ্রমে নিয়া গেলেন । আশ্রমে গিয়া ব্ৰাহ্মণ সন্ন্যাসীর কাছে লেখা পড়া শিথেন । কান নড়বড় বুড়ো বামুণ মুনির কাছে পড়েন কেমন ? এ বেলা దాూ,----ఇ-లె-లె ও বেলা পড়েন,-“খ-চ-ফা-অ-অ-অ ।” S Sq \S0ʻq