পাতা:ঠাকুরমার ঝুলি.djvu/৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

ঠাকুরমা’র বুলি 家 অমনি হাজার হাজার সিপাই আসিয়া বুদ্ধকে বাঁধিয়া-ছাদিয়া রাজপুরীর মধ্যে লইয়া গেল। e নিয়া গিয়া, সিপাহীরা, এক অন্ধকুঠরীর মধ্যে, বুদ্ধকে বন্ধ করিয়া রাখিয়া দিল। অমনি কুঠরীর মধ্যে—“বুদ্ধ ভাই, বুদ্ধ ভাই, আয় ভাই, আয় ভাই!” বলিয়া অনেক লোক বুদ্ধকে ঘিরিয়া ধরিল। বুদ্ধ, দেখিল, রাজপুত্র আর মাল্লা-মাঝিরা ! বুদ্ধ, বলিল,—“বটে ? তা, আচ্ছা!” পরদিন বুদ্ধ, দাঁত-মুখ সিটকাইয়া মরিয়া রহিল। এক দাসী রাজপুত্রদিগে নিত্য কি-না খাবার দিয়া যাইত ! সে আসিয়া দেখে, কুঠারীর মধ্যে একটা বানর মরিয়া পড়িয়া আছে। সে যাইবার সময় মরা বানরটাকে ফেলিয়া দিয়া গেল । আর কি ?--তখন বুদ্ধ আস্তে-আস্তে চােক মিট-মিটি করিয়া উঠে । না, তো, এদিক ওদিক চাহিয়া বুদ্ধ, উঠিল। উঠিয়াই বুদ্ধ, দেখিল, প্ৰকাণ্ড রাজপুরীর তে-তলায় মেঘ-বরণ চুল কুঁচ-বরণ কন্যা বসিয়া সোণার শুকের সঙ্গে কথা কহিতেছে। বুদ্ধ, গাছের ডালে-ডালে, দালানের ছাদে।-ছাদে গিয়া, কুঁচ-বরণ কন্যার পিছনে দাড়াইল । তখন কুঁচ-বরণ কন্যা বলিতেছিলেন,- “সোণার পাখী, ওরে শুক, মিছাই গোল রূপার বৈঠা হীরার হ’ল--কেউ না এল!” ' ' ' ' '. রাজকন্যার খোপায় মোতির ফুল ছিল, বুদ্ধ, আস্তেমোতির ফুলটি উঠাইয়া লইল । - 濒 89.