পাতা:ঠাকুরমার ঝুলি.djvu/৯৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

ঠাকুরমা’র বুলি ※ Š পদ্ম বলিল,—“মাথে রাখি গজমোতি, সোণার কমল বুকে, | * রাজকন্যা রূপবতী ঘর করুক সুখে।” বসন্ত সোণার পদ্ম তুলিয়া বুকে রাখিলেন, গজমোতি তুলিয়া মাথায় রাখিলেন। রাখিয়া ক্ষীর-সাগরের বালুর উপর দিয়া বসন্ত দেশে চলিলেন । অমনি ক্ষীর-সাগরের বালুর তলে কাহারা বলিয়া উঠিল,— “ভাই, ভাই ! আমাদিগে নিয়া যাও।” বসন্ত ত্ৰিশূল দিয়া বালু খুঁড়িয়া দেখেন, তিন যে সোণার মাছ ! তিন সোণার মাছ লইয়া বসন্ত চলিতে লাগিলেন। বসন্ত যেখান দিয়া যান, গজমোতির আলোতে দেশ উজলা হইয়া উঠে। লোকেরা বলে,-“দেখ, দেখ, দেবতা যায় !” বসন্ত চলিতে লাগিলেন । ( هلا ) পিতরাজা মৃগয়ায় বাহির হইয়াছেন। সকল রাজ্যের বন খুজিয়া, একটা হরিণ যে, তাহাও পাওয়া গেল না। শীত সৈন্য-সামন্তের হাতে ঘোড়া দিয়া এক গাছতলায় আসিয়া বসিলেন । গাছতলায় বসিতেই শীতের গায়ে কঁাটা দিল। শীত দেখিলেন, এই তো সেই গাছ ! এই গাছের তলায় জল্লাদের কাছ হইতে বনবাসী দুই ভাই আসিয়া বসিয়াছিলেন, ভাই বসন্ত জল চাহিয়াছিল, শীত জল আনিতে গিয়াছিলেন। সব কথা শীতের S 浚 - :) oV9