পাতা:ঢাকার ইতিহাস প্রথম খণ্ড.djvu/৩০২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

২৩৮ ঢাকার ইতিহাস। [ sष १ः হইয়া পড়িয়াছে। এই জপসী গ্রামের অন্তর্গত একটী পাড়ার নাম ছিল রাজকাদি। তথায় শূদ্র জাতীয় এক শ্রেণীর বহু লোক বাস কল্পিত ; উহার রাজমিস্ত্রীর কার্য্য করিয়া বিশেষ প্রতিষ্ঠা অর্জন করিয়াছিল। নবাবগঞ্জ থানায় যন্ত্রাইল নামে একটী গ্রাম আছে। পালরাজগণের সময়ে এই স্থানে যন্ত্রশাল প্রতিষ্ঠিত ছিল। ধামরাইর হিন্দু শিল্পিগণ বস্ত্রবয়ন কার্য্যে যেরূপ নিপুণতা প্রদর্শণ করিয়াছিল, মৃৎশিল্পেও তাহা হইতে তাহার কোনও অংশে নুনি ছিল না। শিল্প নৈপুণ্যে ধামরাইর অধিবাসিগণ সিদ্ধহস্ত বলিলেও অত্যুক্তি হয় না। আধুনিক যুগে কাচাদিয়া নিবাদী ৮গৌরীকান্ত সেন ভাস্কর্য ও চিত্রশিল্পে যেরূপ নৈপুণ্য প্রদর্শণ করিয়াছেন তাহা স্বধু ঢাকা জেলাবাসীর কেন সমগ্র বাঙ্গালী জাতীরই গৌরবের বিষয়। সাহাবাজ নগরের vকাণী মুখোপাধ্যায়, ও ৮মদন গণক, তারপাশার (ইদানীং কনকসার) চন্দ্রমণি পাল, নাগের হাটের তিলক পাল, ঢাকার চুনীলাল, আনন্দ হরি ও গোপী কৰ্ম্মকার প্রভৃতির শিল্প নৈপুণ্যের খ্যাতি এই জেলার বহুলোকের মুখে শ্রত হওয়া যায়। ৰত্নতঃ শিল্পচাতুৰ্য্যে ঢাকা জেলা যে সমগ্র বঙ্গদেশ মধ্যে শীর্ষ স্থানীয় তদ্বিষয়ে সন্দেহ নাই । এই জেলার বিভিন্ন স্থান হইতে প্রাপ্ত অনিন্য মুনীর ধাতব ও প্রস্তর মূৰ্ত্তিগুলি প্রাচীন কালের উন্নত ভাস্কৰ্য শিল্পের জলন্ত নিদর্শন। এটা মূৰ্ত্তিগুলির নির্মাণ কৌশল দক্ষিণাপথের শিরিগণের অনুরূপ বলিয়া, উছা যে বঙ্গীয় শিরিগণের স্বনিপণ হস্ত প্রস্থত, তাছা স্বীকার করিতে অনেকেই কুষ্ঠিত হন। কিন্তু একটা বিষয়ে লক্ষ্য রাখা আবগুক এই যে, বাঙ্গালী চিরকালই অনুকরণে সিদ্ধ হস্ত। বঙ্গের প্রাচীন ভাস্করগণ যে অন্তের উদ্ভাবিত অভিনব ও উন্নত্যশিল্প বিদ্যার অনুকরণ করিয়াও এতদ্দেশে উহার বহুল প্রচার করিতে সমর্থ হইয়াছিল না, তাহ মনে