পাতা:তপতী - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৩৮ ৷ তপতী বের করতে চেষ্টা করেছিলো। দেশে সবাই তাকে সত্যবাদী ব’লে জানতে ব’লেই তার এই বিপদ ঘাঁটুলো । দেবি, আমি কিছুতেই সাম্বন পাচ্চিনে, আমাকে বুঝিয়ে বলো, সুসারে যারা ধৰ্ম্মকে প্রাণপণে মানেন, ধৰ্ম্ম কেন ॐानहट्टे-4ड्_५:३_निघ्न भीबन । - - সুমিত্র র্যারা ম’রতে পেরেচেন তারাই এ কথার তত্ত্ব জানেন। মৃত্যু দিয়ে যারা সত্যকে পান তাদের জন্তে শোক ক’রো না । শিখরিণী (শোক করবে না, মা, তিনি আমার মৃত্যুর ভয় ঘুচিয়ে দিয়ে গেচেন, আমাকে) এই তার শেষ দান। গ্রামের ஆம் ஆ ابتلا به سدهٔ ۹ ه. این ۴ ته»، «میل به چه -به رسمی o আঁকে বলেচে অভাগনামস্কন্ধত্ব লয় । তিনি আমার স্বামী-ছিলেন-এই-অক্ষার-পরম সৌভাগ্যT-- - সুমিত্রা যারা তাকে মেরেচে, মৃত্যুর দ্বারা তাদের তিনি জয় ক’রেচেন, সে-কথা তা’র কোনোদিন বুঝবে না এইটেই সকলের চেয়ে শোকের কথা। কিন্তু বংসে, তুমি এখানে এসেচে। কেন ? t শিখরিণী - - (এখানে তোমার চরণতলে যদি আশ্রয় নিতে পারতুম | তাহ’লে বেঁচে যেভূম। কিন্তু মা, সংসারের আলো নিলে । তবুও সংসার থাকে । আমার মেয়েটি ཨ།:རྩ) ཨ་༢༢ পিতার -