পাতা:তপতী - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভূমিকা রাজা ও রাণী আমার অল্প বয়সের রচনা, সেই আমার প্রথম নাটক লেখার চেষ্টা । সুমিত্রা এবং বিক্রমের সম্বন্ধের মধ্যে একটি বিরোধ আছে—মুমিত্রার মৃত্যুতে সেই বিরোধের সমাধা হয় । বিক্রমের যে-প্রচণ্ড আসক্তি পূর্ণভাবে সুমিত্রাকে গ্রহণ করবার অন্তরায় ছিল, সুমিত্রার মৃত্যুতে সেই আসক্তির অবসান হওয়াতে সেই শান্তির মধ্যেই সুমিত্রার সত্য উপলব্ধি বিক্রমের পক্ষে সম্ভব হ’লো, এইটেই রাজা ও রাণীর মূল কথা । রচনার দোষে এই ভাবটি পরিস্ফুট হয়নি। কুমার ও ইলার প্রেমের বৃত্তান্ত অপ্রাসঙ্গিকতার দ্বারা নাটককে বাধা দিয়েচে এবং নাটকের শেষ অংশে কুমার যে-অসঙ্গত প্রাধান্ত লাভ ক’রেচে তাতে নাট্যের বিষয়টি হ’য়েচে ভারগ্রস্ত ও দ্বিধা-বিভক্ত। এই নাটকের অস্তিমে কুমারের মৃত্যু দ্বারা চমৎকার উৎপাদনের চেষ্টা প্রকাশ পেয়েচে—এই মৃত্যু আখ্যান-ধারার অনিবাৰ্য্য পরিণাম নয়। অনেকদিন ধ’রে রাজা ও রাণীর ক্রটি আমাকে পীড়া য়েচে । কিছুদিন পূৰ্ব্বে শ্ৰীমান গগনেন্দ্রনাথ যখন এই