পাতা:দানবদলন কাব্য.pdf/১১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
[ ১১৪ ]

কহিলা নামায়ে মুখ, খেদে;—"রে বিধাতঃ
তুই (বুঝিলাম এবে মনে) বিনাশিবি
দৈত্যকুল, এই তার প্রত্যক্ষ সে ফল।"
নীরব হইয়া বীর রহিলা ক্ষণেক।
বিষাদে নিশ্বাস ছাড়ি তুলি তবে ঘাড়,
নিরখিলা চারি দিক; দেখিলা বিস্ময়ে
নাহি নিজ বল কেহ, পলায়েছে সবে
দেখি কালিকার সেই করাল মূরতি।
দুর্ভাগ্যে ঈষৎ বীর হাসিলা অন্তরে।
আঁটিয়া বসন যথা পরে কোন পান্থ,
অসীম সাহস, হতে পার সন্তরণে,
বিশাল বিস্তৃতা খর কল্লোলিনী নদী,
সাপটি ধরিলা ধনু তবে বীর দর্পে,
অসংখ্য অমরসহ যুঝিতে একাকী।
টঙ্কারিয়া ধনু রোষে আরম্ভিলা রণ।
গূঢ় অগ্নি তাপে যথা উষ্ণ প্রস্রবণ
ঊর্দ্ধেতে উৎক্ষিপে বারি আর চতুর্দ্দিকে,
আচ্ছাদিয়া কুণ্ড, রণক্ষেত্র ছায়ি বীর
অজস্র অস্ত্রের জল বর্ষিতে লাগিলা,
ঘোর মন দুখানলে উত্তেজিত হয়ে।
ত্রাসেতে অমরকুল ঘেরি চতুর্দ্দিক
রহিলা দাঁড়ায়ে, দূরে; সাহস না হলো