পাতা:দুই বোন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।
১১২
দুই বোন

ওর ইচ্ছে একেবারেই বিমুখ হয়ে গেছে অথচ কৰ্তব্য বুদ্ধি তাড়া দিচ্ছে। কৰ্তব্য বুদ্ধির অত্যাচারেই মন আরো যাচ্ছে বিগড়িয়ে। নিজের অপরাধ ক্ষমা করা কঠিন হয়ে উঠল ব’লেই অপরাধ প্ৰশ্ৰয় পেতে লাগল। বেদনায় অাফিমের প্রলেপ দেবার জন্যে শশাঙ্কের সঙ্গে খেলায় অামাদে নিজেকে সৰ্ব্বক্ষণ ভুলিয়ে রাখতে চেষ্টা করে। বলে, যখন সময় আসবে তখন আপনি সব ঠিক হয়ে যাবে, এখন যে-কয়দিন ছুটি ওসব কথা থাক্। আবার হঠাৎ এক-একদিন মাথা বাকানি দিয়ে বই খাতা টাঙ্কের থেকে বের করে তার উপরে মাথা গুজে বসে। তখন শশাঙ্কর পালা। বইগুলো টেনে নিয়ে পুনরায় বাক্সজাত ক’রে সেই বাক্সর উপর সে চেপে বসে। উৰ্মি বলে, “শশাঙ্কদা, ভারি অন্যায়। অামার সময় নষ্ট কোরো না।” শশাঙ্ক বলে, “তোমার সময় নষ্ট করতে গেলে অামারো সময় নষ্ট। অতএব শোধবোধ।” তারপরে খানিকক্ষণ কাড়াকড়ির চেষ্টা ক’রে অবশেষে উমি হার মানে। সেটা যে ওর পক্ষে নিতান্ত অাপত্তিজনক তা মনে হয় না। এইরকম বাধা পেলেও কৰ্তব্য বুদ্ধির পীড়ন দিনপাঁচ-ছয় একাদিক্ৰমে চলে তারপরে অাবার তার জোর কমে যায়। . বলে,