পাতা:দুই শিষ্য - প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/২১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

দুই শিষ্য।

২১


ছেন। গুরুদেব বেহারীকে পুত্রাধিক স্নেহ করিয়া থাকেন; বেহারীও গুরুদেবের একান্ত ভক্ত।”

 কিছুক্ষণ পরে আমি জিজ্ঞাসা করিলাম, “বেহারীর কোন শত্রু আছে আপনি জানেন?”

 আমার কথায় বলদেব চমকিত হইলেন। তিনি কিছুক্ষণ আমার মুখের দিকে হাঁ করিয়া চাহিয়া চাহিয়া, পরে জিজ্ঞাসা করিলেন, “কেন? আপনি সে কথা জিজ্ঞাসা করিতেছেন কেন? তবে কি বেহারীর কোনরূপ অনিষ্ট আশঙ্কা করিতেছেন?”

 আমি বলিলাম, “সন্দেহ করিতেছি মাত্র। আপনি কি বেহারীর কোন শত্রুকে জানেন?”

 বলদেব আমতা আমতা করিয়া বলিলেন, “পূর্ব্বে সে শত্রু ছিল বটে, কিন্তু এখন নয়। এক সময় সে বেহারীর উপর বড়ই রাগান্বিত হইয়াছিল।”

 আমি আশ্চর্যান্বিত হইয়া জিজ্ঞাসা করিলাম, “কেন?”

 বলদেব ঈষৎ হাসিয়া বলিলেন, “গুরুদেব বেহারীকে ভাবী সেবায়েত বলিয়া স্থির করিয়াছেন। এই অপরাধ।”

 বলদেবের মুখে এই নূতন সংবাদ পাইয়া আমি আন্তরিক আনন্দিত হইলাম। পরে জিজ্ঞাসা করিলাম, “সেই লোকটীর, নাম কি? তিনি কি এখনও আপনাদের গুরুদেবের শিষ্য আছেন?”

 ব। আজ্ঞে তাহার নাম কেদারনাথ ভট্টাচার্য্য। তিনি এক সময়ে গুরুদেবের বড় প্রিয়-শিষ্য ছিলেন, কিন্তু কিছুদিন হইল, তিনি আর আমাদের মন্দিরে আইসেন না।

 আ। আপনাদের গুরুদেব কি এ সকল কথা জানেন?