পাতা:দেবী চৌধুরানী - বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১০৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বিতীয় খণ্ড-নবম পরিচ্ছেদ وسيا ব্র । তোমার কে হয় ? : সা। ভগিনী । ব্র। কি রকম ভগিনী ? স। জ্ঞাতি। " . . ব্ৰজেশ্বর আবার চুপ করিল। মাঝিদিগকে ডাকিয়া বলিল, “তোমরা বড় বজরার সঙ্গে যাইতে পার ?” মাঝিরা বলিল, “সাধ্য কি ! ও নক্ষত্রের মত ছুটিয়াছে।” ত্রজেশ্বর আবার চুপ করিল। সাগর ঘুমাইয়া পড়িল । - প্রভাত হইল, ব্রজেশ্বর বজরা খুলিয়া চলিল। সূৰ্য্যোদয় হইলে, সাগর আসিয়া ব্রজেশ্বরের কাছে বসিল। ব্রজেশ্বর জিজ্ঞাসা করিল, “দেবী কি ডাকাতি করে ?” * সা। তোমার কি বোধ হয় ? ব্র । ডাকাতির সমান . ত সব দেখিলাম—ডাকাতি করিলে করিতে পারে, তাও দেখিলাম । তবু বিশ্বাস হয় না যে, ডাকাতি করে। সা। তবু কেন বিশ্বাস হয় না ? ব্র । কে জানে। ডাকাতি না করিলেই বা এত ধন কোথায় পাইল ? সা। কেহ বলে, দেবী দেবতার বরে এত ধন পাইয়াছে ; কেহ বলে, মাটির ভিত্তর পোতা টাকা পাইয়াছে ; কেহ বলে, দেবী সোনা করিতে জানে। - ব্র । দেবী কি বলে ? সা। দেবী বলে, এক কড়াও আমার নয়, সব পরের। ব্র । পরের ধন এত পাইল কোথায় ? সা। তা কি জানি । ত্র। পরের ধন হলে অত আমিরি করে ? পরে কিছু বলে না ? সা। দেবী কিছু আমিরি করে না। খুদ খায়, মাটিতে শোয়, গড় পরে। কাল যা দেখলে, সে সকল তোমার আমার জন্ত মাত্র,--কেবল দোকানদারি । তোমার হাতে ও কি ? সাগর ব্রজেশ্বরের আঙ্গুলে নূতন আঙ্গটি দেখিল। - ব্রজেশ্বর বলিল, “কাল দেবীর নৌকায় জলযোগ করিয়াছিলাম বলিয়া, দেবী আমাকে এই আঙ্গটি মর্য্যাদা দিয়াছে।” সা। দেখি । 38 .