পাতা:দেবী চৌধুরানী - বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দেবী চৌধুরাণী מסיל সাহেব। কাদিতেছিলে কেন ? : হর। কই ? কাদি নাই। সাহেব । বাঙ্গালী এমনই মিথ্যাবাদী বটে। - - নিশি ভিতরে আসিলে, দেবী জিজ্ঞাসা করিল, “আমার শ্বশুরের সঙ্গে এত কি কথা কহিতেছিলে ?” নিশি। দেখিলাম, যদি তোমার শাশুড়ীগিরিতে বাহাল হইতে পারি। দেবী। নিশি ঠাকুরাণি ! তোমার মন প্রাণ, জীবন যৌবন সৰ্ব্বস্ব শ্ৰীকৃষ্ণে সমর্পণ করিয়াছ—কেবল জুয়াচুরিটুকু নয়। সেটুকু নিজের ব্যবহারের জন্য রাখিয়াছ। নিশি। দেবতাকে ভাল সামগ্রীই দিতে হয়। মন্দ সামগ্রী কি দিতে আছে ? দেবী। তুমি নরকে পচিয়া মরিবে । নবম পরিচ্ছেদ ঝড় থামিল ; নৌকাও থামিল। দেবী বজরার জানেল হইতে দেখিতে পাইলেন, প্রভাত হইতেছে। বলিলেন, “নিশি ! আজি সুপ্রভাত !” নিশি বলিল, “আমি আজ সুপ্রভাত ।” • দিবা। তুমি অবসান, আমি সুপ্রভাত ! নিশি। যে দিন আমার অবসান হইবে, সেই দিনই আমি সুপ্রভাত বলিব। এ অন্ধকারের অবসান নাই। আজ বুঝিলাম, দেবী চৌধুরাণীর সুপ্রভাত—কেন না, আজ দেবী চৌধুরাণীর অবসান। - দিবা। ও কি কথা লে৷ পোড়ারমুখী ? নিশি। কথা ভাল । দেবী মরিয়াছে। প্রফুল্ল শ্বশুরবাড়ী চলিল । দেবী। তার এখন দেরী ঢের । যা বলি, কর দেখি । বজরা বাধিতে বল দেখি । নিশি হুকুম জারি করিল-মাঝিরা তীরে লাগাইয়া বজরা বাধিল । তার পর দেবী বলিল, “রঙ্গরাজকে জিজ্ঞাসা কর, কোথায় আসিয়াছি । রঙ্গপুর কত দূর ভূতনাথ কত দূর ?” রঙ্গরাজ জিজ্ঞাসায় বলিল, “এক রাত্রে চারি দিনের পথ আসিয়াছি। রঙ্গপুর এখান হইতে অনেক দিনের পথ। ডাঙ্গা-পথে ভূতনাথে এক দিনে যাওয়া যাইতে পারে।” Aw ow.