পাতা:দেবী চৌধুরানী - বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৮৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দেৰী পর্দার আড়ালে ; কেহ দেখিল না যে, দেবী এই কথা বলিবার সময় চোখ । মুছিল। - - ... ', " ...' ' ব্রজ। আমি যদি বলি, আমার নাম দুখিরাম চক্রবর্তী, আপনি বিশ্বাস করিবেন কি ? দেবী । না । ব্রজ । তবে জিজ্ঞাসার প্রয়োজন কি ? দেবী। আপনি বলেন কি না, দেখিবার জন্ত । ব্রজ। আমার নাম কৃষ্ণগোবিন্দ ঘোষাল। দেবী। না। ব্রজ । দয়ারাম বক্সী। দেবী। তাও না । । ব্ৰজ | ব্ৰজেশ্বর রায় । দেবী ৷ হইতে পারে। এই সময়ে দেবীর কাছে আর একজন স্ত্রীলোক নিঃশব্দে আসিয়া বসিল। বলিল, “গলাটা ধরে গেছে যে ?” দেবীর চক্ষের জল আর থাকিল না—বর্ষাকালের ফুটন্ত ফুলের ভিতর যেমন বৃষ্টির জল পোরা থাকে, ডাল নাড়া দিলেই জল ছড়, ছড়, করিয়া পড়িয়া যায়, দেবীর চোখে তেমনি জল পোরা ছিল, ডাল নাড়া দিতেই ঝর ঝরু করিয়া পড়িয়া গেল। দেবী তখন ঐ স্ত্রীলোককে কানে কানে বলিল, “আমি আর এ রঙ্গ করিতে পারি না। তুই কথা ক’। সব জানিস্ত ?” এই বলিয়া দেবী সে কামরা হইতে উঠিয়া অন্য কামরায় গেল। ঐ স্ত্রীলোকটি দেবীর ! আসন গ্রহণ করিয়া, ব্রজেশ্বরের সহিত কথা কহিতে লাগিল। এই স্ত্রীলোকের সঙ্গে পাঠকের o পরিচয় আছে—ইনি সেই বামনশূন্ত বামনী-নিশি ঠাকুরাণী। নিশি বলিল, “এইবার ঠিক বলেছ—তোমার নাম ব্রজেশ্বর রায়।” - ব্ৰজেশ্বরের একটু গোল বাধিল । পর্দার আড়ালে কিছুই দেখিতে পাইতেছিলেন না— কিন্তু কথার আওয়াজে সন্দেহ হইল যে, যে কথা কহিতেছিল, এ সে বুঝি নয়। তার আওয়াজটা বড় মিঠে লাগিভেছিল—এ বুঝি তত মিঠে নয়। যাই হউক, কথার উত্তরে । ব্রজেশ্বর বলিলেন, “যদি আমার পরিচয় জানেন, তবে এই বেলা দরটা চুকাইয়া লউন—আমি স্বস্থানে চলিয়া যাই। কি দরে আমাকে ছাড়িবেন ?” নিশি। এক কড়া কাণ কড়ি। সঙ্গে আছে কি ? থাকে যদি, দিয়া চলিয়া যান। . . . . .