বিষয়বস্তুতে চলুন

পাতা:ধম্মপদ - সতীশচন্দ্র মিত্র.pdf/২৪

উইকিসংকলন থেকে
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
( ১৲ )

সংস্করণ বসুমিত্রের মহাসমিতিতে ত্রিপিটকের সারাংশ বিশেষ বলিয়া গৃহীত ও স্থিরীকৃত হয়।[১] পরে সেই ধম্মপদ চীন প্রভৃতি দেশে দূরবর্ত্তী প্রদেশে ভারতবর্ষীয় পণ্ডিতদিগের দ্বারা নীত হয় এবং তাঁহাদেরই তত্ত্বাবধানে তত্তদ্দেশীয় লোকদিগের দ্বারা বিভিন্ন ভাষায় অনূদিত হয়।

 মহাপণ্ডিত বুদ্ধঘোষ প্রথম ধর্ম্মপদের সুবিস্তৃত টীকা প্রণয়ন করেন। বুদ্ধঘোযের পূর্ব্বে এদেশে ধম্মপদের বহু সংস্করণ প্রচলিত ছিল। বুদ্ধঘোষ বহুসংখ্যক পুথি দেখিয়া, তাঁহার টীকা পুস্তক সম্পাদিত করেন। তিনি অনেক স্থলে বিভিন্ন পাঠ বা মতের উল্লেখ করিয়াছেন। বুদ্ধঘোষ ধম্মপদের প্রায় প্রত্যেক শ্লোকের ব্যাখ্যায় এক একটি উপাখ্যান সংযোজিত করিয়াছেন। বুদ্ধদেবের ধর্ম্মজীবনের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ঘটনা হইতে এই সকল উপাখ্যান সংগৃহীত হইয়াছিল।[২] পাশ্চাত্য পণ্ডিতগণ


  1. Scheifner's German Translation p.68.
  2. Parables of Buddhaghosha, translated from the Burmese by Captain Rogers.