পাতা:নবজাতক-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নবজাতক নিরর্থ হাহাকারে দিয়ে না দিয়ে না অভিশাপ বিধাতারে । পাপের এ সঞ্চয় সর্বনাশের পাগলের হাতে আগে হয়ে যাক ক্ষয় । বিষম তুঃখে ব্রণের পিণ্ড বিদীর্ণ হয়ে, তার কলুষপুঞ্জ ক’রে দিক উদগার। ধরার বক্ষ চিরিয়া চলুক বিজ্ঞানী হাড়গিলা, রক্তসিক্ত লুব্ধ নখর একদিন হবে ঢিলা । প্রতাপের ভোজে আপনারে যার বলি করেছিল দান সে দুর্বলের দলিত পিষ্ট প্রাণ নরমাংসাশী করিতেছে কাড়াকড়ি, ছিন্ন করিছে নাড়ী । তীক্ষ্ণ দশনে টানাছেড়া তারি দিকে দিকে যায় ব্যেপে রক্তপঙ্কে ধরার অঙ্ক লেপে । সেই বিনাশের প্রচণ্ড মহাবেগে একদিন শেষে বিপুল বীর্য শান্তি উঠিবে জেগে